সৈয়দপুর উপজেলার পূর্ব বেলপুকুর দোয়ানীপাড়ায় মামলার সাক্ষীর বাড়িতে অর্তকিত হামলা ও অগ্নিসংযোগ করার খবর পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার ১৯ অক্টোবর রাতে আসামিপক্ষ তার দলবলসহ সাক্ষীর বাড়িতে প্রথমে হামলা চালায়। পরে আগুন লাগিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। অভিযোগে জানা যায়, ওই এলাকার সিরাজুল ইসলাম এর সাথে হামিদুল গং এর আদালতে নারী নির্যাতন মামলা চলে আসছে। ওই মামলার বাদি সিরাজুল ইসলাম সাক্ষী হিসেবে আসাদুল হককে অর্ন্তভূক্ত করেন। কেন আসাদুল হক মামলার সাক্ষী হলেন এ নিয়ে তাকে আসামি পক্ষ থেকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখানো হতো। ঘটনার দিন আসামিরা আদালতে হাজিরা দিয়ে এসে রাতের অন্ধকারে দলবদ্ধ হয়ে সাক্ষীর বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হামলা চালায়। এতে করে সাক্ষীর একটি গোয়াল ঘর আগুনে পুড়ে যায়। যার ক্ষয়ক্ষতি হবে প্রায় ১৫ হাজার টাকা। গোয়াল ঘরে রাখা ছিল ৫টি গরু। তার মধ্যে ২টি গরু পাওয়া যায়নি। যার আনুমানিক মূল্য হবে ৩৫ হাজার টাকা। হামলাকারীরা হলো ওই এলাকার মৃত দবীর উদ্দীনের ছেলে আশিকুজ্জামান এরশাদ (২৭), মৃত: গেন্দু মামুদের ছেলে হামিদুল ইসলাম (৩০), মো. জালাল উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩২), মৃত: দবীর উদ্দীনের মাহাবুল ইসলাম (৩৬), মৃত: সহির উদ্দিনের ছেলে তাজুল ইসলাম (৩০), মৃত: জালাল উদ্দিনের মেয়ে হানিফা, মৃত: বাফাজ উদ্দীনের ছেলে মোস্তম, মৃত: জালাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জলিল, সাহাবুল ইসলামের ছেলে মানজেনুর, মৃত: বাফাজ উদ্দিনের ছেলে জিয়ারুল, মৃত: সহির উদ্দিনের ছেলে নজরুল, নজরুল ইসলামের ছেলে আখতারুজ্জামান সাবুসহ আরও অনেকে। আগুন লাগা এবং বাড়িতে হামলার খবর থানা পুলিশ জানতে পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেন সৈয়দপুর থানার এসআই এরশাদ হোসেন। সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য