ধান কাটা শুরু Dhanদিনাজপুরের কাহারোলের বিভিন্ন এলাকায় আগাম জাতের আমন ধান কাটা ও মাড়াই শুরু হয়েছে। এই কারণে কৃষকদের মুখে দেখা দিয়েছে হাসির ঝিলিক। কৃষক বধুরাও বসে নেই। ধান কেটে বাড়ি আনার পর শীষ থেকে ধান ছড়ানো সিদ্ধ করে শুকিয়ে ঘরে তোলার কাজ করছেন কৃষক বধু ও মেয়েরা। আগাম আমন ধানের ফলনও হয়েছে বাম্পার। আগাম ধান চাষীরা জানান, মঙ্গাকে বিতারিত করা হয়েছে। ধানের দাম ভাল থাকায় চাষীরা আনন্দিত।

মঙ্গলবার কাহারোল হাটে প্রতিমন নতুন ধান বিক্রি হয়েছে ৬২৫ টাকা থেকে ৬৭৫ টাকা। কিন্তু শ্রমিকদের মুজুরি বেশি থাকায় কৃষি শ্রমিকেরা উৎফুল। তবে ধান কাটা মাড়াই করতে কৃষি শ্রমিক পাওয়াটা খুবই কষ্টকর হচ্ছে। দৈনিক আড়াই শ থেকে ৩ শত টাকা দিয়ে শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। কৃষি শ্রমিকের মূল্য দ্বিগুণ হওয়ায় শ্রমিকেরা অত্যান্ত খুশি। চলতি আমন মৌসুমে কাহারোল উপজেলায় ১৩ হাজার ১৫ হেক্টর জমিতে আমন ধানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৫৩৯ মেট্রিক টন চাল। এর মধ্যে আগাম জাত সহ চাষ করা হয়েছে মোট আবাদের ২৫ শতাংশ।

এবার আমন আবাদের শুরুটা খুব ভাল ছিল না। প্রথমে থেকেই কৃষকের মধ্যে সংখ্যা ছিল। প্রথম পর্যায়ে বৃষ্টির অভাবে ক্ষুদ্র ও মাঝারি কৃষকদের মাথায় হাত পড়ে। কৃষকেরা মেশিনে সেচ দিয়ে আমন আবাদ চাষ শুরু করে। বর্ষকাল পেরিয়ে যাওয়ার পর আকাশে কালো মেঘের আনা গোনায় কৃষকের মুখে হাসি ফুঁটে উঠেছে। সবকিছু মোকাবেলা শেষে এলাকা ঘুরে দেখা গেছে। আমনের ফলন এবার ভালই হবে।

বিভিন্ন আগাম আমন জাত যে এখন ৭৫ থেকে ৯০ দিনের মধ্যে ফলন দিতে পারে তা অবাক করে দিয়েছে কৃষকদের। দিন মাস বছর যতই পার হচ্ছে ততোই যেন নতুন নতুন আগাম জাতের আমন ধান কৃষকদের উজ্জীবিত করছে। কৃষক সাজাহান, সামিউল সহ বেশ কয়েকজন কৃষকের সাথে কথা বলে আরও জানা গেছে, হাট বাজারগুলোতে বিভিন্ন জাতের আমন ধান ভালই দামে বিক্রি হচ্ছে। অথচ ২ মৌসুম আগে ধানের দাম কম ছিল।

কৃষকেরা জানায়, ৩ বছর আগে ১ একর জমি ধান কাটা মারায় সর্বোচ্চ দেড় হাজার টাকা খরচ হত। বর্তমানে খরচ হচ্ছে দ্বিগুণ। অপরদিকে দিন হাজিরায় যে সব শ্রমিক কাজ করত তাদেরও মুজুরি দ্বিগুণ হয়েছে। বর্তমানে আশ্বিন ও কার্তিক মাসের মঙ্গা দূর হয়েছে আগাম জাতের আমন ধান চাষ করায়। কাহারোল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জানান, আগাম আমন ধান আবাদ ভাল হয়েছে ফলনও ভাল দাম ভালই রয়েছে। কৃষকেরা বর্তমান সময় তাদের মঙ্গা দূর করে প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতে সক্ষম হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য