Madok মাদকমোঃ মাহমুদুল হক মানিক, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:  ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে দিনাজপুর জেলার সিমান্তবর্তী বিরামপুর উপজেলাতে অবৈধ মাদকদ্রব্যের চোরাচালান কয়েকগুন বৃদ্ধি পেয়েছে।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী  গ্রামগুলো থেকে কয়েকদল মাদক চোরাকারবারী পুলিশ ও বিজিবির চোক ফাঁকি দিয়ে ভারতীয়  বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মদ, বিয়ার, ফেন্সিডিল, গাঁজা, হেরোইন, ইয়াবা সহ কয়েক প্রকার নেশাজাতীয় ট্যাবলেট, ইঞ্জেকশন বিরামপুর শহরে এনে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে দিচ্ছে। পুলিশ ও বিজিবি মাঝে-মধ্যে অভিযান পরিচালনা করে কিছু মাদকদ্রব্য আটক করলেও অধিকাংশ মাদকদ্রব্য ও মাদক ব্যবসায়ীরা থেকে যাচ্ছে ধরাছোয়ার বাইরে।

বিরামপুরের কাটলা বাজার ও এর আশেপাশের সীমান্তবর্তী এলাকাতে অনেকটা প্রকাশ্যে মাদকের বেচাকেনা চলছে। দিনাজপুর সদর সহ পার্শ্ববর্তী জেলাগুলো থেকে মাদকসেবিরা কাটলায় এসে মাদক সেবন বা গ্রহন করে আবার সাথে করে নিয়ে যাচ্ছে। কাটলা বাজারে মটরসাইকেলে চেপে কয়েক শত অপরিচিত তরুন-যুবকের প্রতিদিনের আসা যাওয়া দেখলেই এর প্রমান মেলে।

উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রামগুলো ছাড়াও পৌর এলাকার মির্জাপুর, চকপাড়া, রেলস্টেশন এলাকা, ঘোড়াঘাট রেলগুমটি সহ আরো কয়েকটি এলাকাতে মাদক বেচাকেনার স্পট রয়েছে। মাদক বিক্রেতাদের একটি শক্তিশালি সিন্ডিকেট এবং স্থানীয় প্রশাসনের সাথে এদের সুসম্পর্ক থাকাতে স্থানীয় লোকজন এদের ভয়ে এসকল অপকর্ম সহ্য করে যাচ্ছে, ভয়ে কেউ মুখ খোলেনা।

এ উপজেলার একমাত্র নিবন্ধনকৃত মাদক বিরোধী সংগঠন ‘বিরামপুর মাদক প্রতিরোধ ও জনকল্যাণ সংস্থা-পূর্বপাড়া’ এর সভাপতি সেলিনা পারভীন, সেক্রেটারী শাহ্ আলম, কোষাধক্ষ্য ইউছুব আলী, জয়েন সেক্রেটারী আশরাফুল ইসলাম তেল¬া, উপদেষ্টা ডা: রফিকুল ইসলাম বাবলু, প্রভাষক মেহেদী হাসান চৌধুরী, জাহাঙ্গীর আলম সহ সংগঠনের কয়েকজন নেতৃবৃন্দের সাথে এ বিষয়ে কথা বললে তারা বলেন, আমরা মাদকের বিরুদ্ধে লড়াই করে পৌর এলাকার পূর্বপাড়া ও আশেপাশের কিছু এলাকাগুলো মাদক মুক্ত করতে পেরেছি। তবে আমরা তো সরকারি প্রশাসনের কেউ নই।

স্থানীয় প্রশাসন যদি আন্তরিকভাবে কাজ করে তবেই বিরামপুরে মাদকের বিস্তার রোধ করা সম্ভব। এজন্য সংস্থাটির নেতৃবৃন্দরা সরকারি প্রশাসনের উদ্যোগে প্রতিটি গ্রামে একটি করে মাদক প্রতিরোধ কমিটি গঠনের দাবী জানান এবং কমিটিগুলোর সদস্যদের নিয়ে মাদকবিরোধী ও সচেতনতামূলক সভা-সমাবেশ করার পরামর্শ দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য