Birgonj- 04.10.14 (1)মোঃ মীর কাসেম লালু, বীরগঞ্জ ॥ বীরগঞ্জে ভিজিএফ চাউল বিতরনে ঘাপলার কারনে চেয়ারম্যান অবরুদ্ধ, পরিষদের গুদামে তালা দিয়েছে ইউপি সদস্য, সাবেক চেয়ারম্যান হামলার শিকার হয়ে হাসপাতালে।

উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ওহেদুজ্জামান বাদশা ইউপি সদস্যাদের বাদ দিয়ে একক সিদ্ধান্তে ৮ কেজি করে দূর্গাপুজা ও ঈদুল আযাহা উপলক্ষে ভিজিএফ চাউল গত বৃহস্পতিবার দেয়। এসময় ৫ বস্তা চাউল বেশী হয়। যা জানার পর ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক, মিজানুর রহমান ও বাবুল হোসেন এলাকাবাসীকে নিয়ে পরিষদের গুদামে তালা দিয়ে চাউলগুলি আটোক করে। সংবাদ পেয়ে চেয়ারম্যান নিজেকে রক্ষার জন্য রাতেই পুজা মন্ডবের মাইক হতে অনুপস্থিত দু:স্থদের চাউল শুক্রবার বিতরন করা হবে মর্মে ঘোসনা দেয়।

চেয়ারম্যানের পক্ষ নেওয়ায় ইউপি সদস্য বিষ্টু চন্দ্র রায় শুক্রবার চাউল বিতরন করতে গেলে ইউপি সদস্য মালেকের নির্দেশে জনতা বিষ্টু চন্দ্র রায়কে গনধোলাই দেয়। শনিবার পূনরায় চেয়ারম্যান উক্ত চাউল বিতরণ করতে চাইলে সাবেক চেয়ারম্যান সুরুজ, ইউপি সদস্য ও ইউপি আ’লীগ সভাপতি মিজানুর রহমান, ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক ও বাবুল হোসেন বাধা দিলে চেয়ারম্যানের গুনো মুগ্ধ বিএনপি’র সভাপতির নির্দ্দেশে কয়েকজন তাদের উপর হামলা চালায়।
SAM_3155 copy
এতে সাবেক চেয়ারম্যান সুরুজ আহত হয় এবং ঘটনাস্থলটি ভয়ংকর রুপ নেয়। এসময় এলাকাবাসী ইউপি চেয়ারম্যান বাদশাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। সংবাদপেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেল মনজুর ও বীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ শওকত হোসেনে নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এসময় ইউএনও চেয়ারম্যানকে উদ্ধার করে ও চাউলগুলি জব্দ করে। এলাকাবাসী সাবেক চেয়ারম্যান সুরুজকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করেন।

এব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান বাদশা জানায়, অতিতে ইউপি সদস্যরা চাউল কম দেওয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমি নিজেই পরিষদের ৩ জন মহিলা ও ৪ জন পুরুষ সদস্যকে সাথে নিয়ে বিতরন করি ১.৬৮০ জন দু:স্থদের বরাদ্দ কৃত চাউল। যা রয়েছে তা বাদপড়া দু:স্থদের।

অপরদিকে ইউপি সদস্য মিজানুর, বাবুল ও এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, চাউল ওজনে কম দিয়ে চেয়ারম্য অবশিষ্ট চাউল বিক্রি করে অর্থ আত্মসাত চেষ্টা মাত্র। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ভিজিএফ চাউল বিতরন কাজ বন্ধ ও  সাবেক চেয়ারম্যান সুরুজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য