Bochagonjশাহজাহান খোকন ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ সেতাবগঞ্জ চিনিকলের সবচেয়ে মুল্যবান জমি স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগীতায় ভুমিদুস্যরা দখলের মহা উৎসবে মেতে উঠেছে। চিনিকল কর্তৃপক্ষ ভুমি উদ্ধারে আশানুরুপ সহযোগীতা পাচ্ছেন না।

খোজ নিয়ে জানা গেছে, সেতাবগঞ্জ চিনিকলের সবচেয়ে বড় খামার হলো কান্তা খামার এই খামারের অবস্থান হলো দিনাজপুর জেলা শহরের সবচেয়ে নিকটবর্তী বানিজ্যিক ভাবে অতিব গুরুত্বপুর্ন এলাকা দশ মাইল নামক স্থানে।এই খামারে মোট জমি আছে বিভিন্ন স্থাপনা সহ সর্বমোট ১হাজার তিনশত একুশ একর ৩৫ শতক।এই কামার ২টি ভাগে বিভক্ত একটি অংশ হলো সাদীপুর সেকশন  এই সেকশনের সর্বমোট ২ একর ৮৯ শতক জমি দখল করে বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে তুলেছে ভুমি দুস্যরা। যার বর্তমান বাজার মুল্য ৮ কোটি ৬৭ লক্ষ টাকা।

এই দখল প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার সাথে সাথে সেতাবগঞ্জ চিনিকল কর্তৃপক্ষ গত ১৬ ফেব্র“য়ারী ২০১৪ সালে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক বরাবরে ভুমি উদ্ধারের জন্য জেলা প্রশাসক কে পত্র দ্বারা অবহিত করে এর প্রতিকার চায় । প্রতিউত্তরে জেলা প্রশাসক মিলের কাছে বিভিন্ন প্রকার কাগজপত্র চায় ।মিল তাদের মালিকানার স্বপক্ষে কাগজপত্র দাখিল করে। এরপরেও ভুমি দখলকারীরা থেমে থাকে নাই। এক সময় তারা স্থাপনা নির্মান শুরু করে। বর্তমানে ঐ দখল প্রক্রিয়া এমন পর্যায়ে গেছে  যে, চিনিকল কর্তৃপক্ষ তাদের নিজ জমিতে যাওয়ার রাস্তা পর্যন্ত বন্ধ হয়ে গেছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুসদ্ধানে খোজ নিয়ে জানা গেছে ঐ এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান নাসিরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে  রুহুল আমিন (দুলু),রনজিৎ কুমার (মিরু),আঃ মোতালেব,শফিকুল ইসলাম,জিয়ারুল ইসলাম,আঃ মান্নান,মজিবর রহমান,আতিকুর রহমান, নুরুল হুদা, মোঃ শাহজাহান, একরামুল হক, উল কুমার, রিয়াজুল হক, পুর্ন চন্দ্র রায়, শক্তি কুমার রায়, অহিদুল হক, দুলু মিয়া, আবু তালেব, আমিন, মোঃ গাজী, সাহিন হাসান, মিজান, আলতাফ, মনির হোসেন সহ আরো কয়েকজন এই সব জমি দখল করেছে। চিনি কলের পক্ষ থেকে  কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ভুমি উদ্ধারে সহযোগিতা চাইলে তিনি জানান ঐ সব জমি পেরিফেরির আওতায় নিয়ে সেখানে হাট বসানো হবে।

সরকারী এই সব মুল্যবান জমি বেদখল হওয়ায় চিনিকল কর্তৃপক্ষ চরম বেকায়দায় পড়েছে। চিনিকল কর্তৃপক্ষ তাদের জমি উদ্ধারের জন্য সরকারের  সংশ্লিষ্ট মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সর্বশেষ তথ্যে জানা গেছে সেতাবগঞ্জ চিনিকল কর্তপক্ষ জমি উদ্ধার ও স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে দিনাজপুর আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য