SAM_3085 copyমোঃ মীর কাসেম লালু, বীরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে গত বৃহস্পতিবার পলাশবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির দাতা সদস্য মঙ্গলু বর্ম্মন (৭৫) অপহরনের সাত দিন পর ছাড়া পেয়ে পুলিশের সহযোহিতায় বাড়ীতে ফিরেছে। উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের পলাশবাড়ী গ্রামের মৃত: কাত্তিক বর্ম্মনের পুত্র মঙ্গলু বর্ম্মনের স্ত্রী ফুলফুলী বর্ম্মন, পুত্র সানু বর্ম্মন ও বৌমা কল্পনা রানী বর্ম্মন অভিযোগ করেন একই গ্রামের হরি কেশর, দুলাল হেসেন ও হাইজুল ইসলাম বাড়ীতে এসে পলাশবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নিয়োগ সিদ্ধান্তে স্বার বিষয়ে ভয়ভীতি হুমকি প্রদর্শন করে। ২৪ সেপ্টেম্বর ওই ৩জন মঙ্গলু বর্ম্মনকে অপহরন করে অজ্ঞাত স্থানে আটকে রাখে। গত বৃহ¯প্রতিবার ছাড়া পেয়ে থানায় এসে অভিযোগ করেন পলাশবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক নিয়োগ সিদ্ধান্তে স্বার বিষয়ে কতিপয় ব্যাক্তি ভয়ভীতি হুমকি প্রদর্শন করছে। সে কারনে বাড়ী ফিরতে ভয় পাচ্ছে। থানার ওসি প্রশাসন কেএম শওকত হোসেন সাধারন ডাইরীর মতাবলে ও রিাপত্তার বৃহতর স্বার্থে পুলিশ স্কটের মাধ্যমে বিকেলে বাড়ী পৌছে দিয়েছেন। বিদ্যালয়ের সভাপতি মুস্তাক আহম্মেদ মানিক জানান অপহৃত মঙ্গলু বর্ম্মন, হরি কেশর, দুলাল হোসেন, হাইজুল ইসলাম, আনোয়ারা বেগম, ধনেশ্বর রায়, দীলিপ মাষ্টার সহ সাত জন সদস্য ইতিমধ্যে পরিচালনা কমিটি থেকে অব্যাহতি পত্র জমা দিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য