Gai-Shagata-Photoআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধাঃ বাঙালী নদীর ভাঙনে নিঃস্ব হওয়া মানুষের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। ফলে কমে আসছে ফসলি জমি। এছাড়া নদী ভাঙ্গনের হুমকিতে পড়েছে আরও বসতভিটা, অসংখ্য আবাদি জমি ও একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। অথচ পানি উন্নয়ন বোর্ড ভাঙ্গন প্রতিরোধে কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না।ভাঙ্গনের শিকার গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার কচুয়া ইউনিয়নের চন্দনপাট, সতীতলা, কচুয়া ও রামনগর গ্রামের হাজার হাজার জনতা ফসলি জমি ও ঘরবাড়িড় রক্ষার দাবিতে বুধবার ভাঙ্গন কবলিত নদীতীরে বিশাল মানববন্ধন করেছে। নদীতীরবর্তী ২ কিলোমিটার ব্যাপী মানববন্ধনে দাড়ানো দু:স্থ মানুষের কন্ঠে শুধু একটাই আকুতি ছিল, -‘ভাঙ্গনের প্রতিরোধ করো, মানুষ বাঁচাও’। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন কচুয়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বকুল, শিক্ষক আব্দুস সালাম, আবুল কালাম, তছলিম উদ্দীন, আজাদ হোসেন, নুরুল ইসলাম, আব্দুল হাই, জামিল আহম্মেদ, শাহাদুল ইসলাম প্রমূখ। এলাকাবাসী জানান, অতি জরুরী সরকারি ভাবে ভাঙন রক্ষায় পদক্ষেপ না নিলে একটি সড়ক, আবাদি জমি ও বহু ঘরবাড়ি নদীগর্ভে চলে যাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য