7_Joyআন্তর্জাতিক ডেস্ক: আপাতত জেলেই থাকতে হচ্ছে জয়ললিতাকে। তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার জামিনের আবেদনের শুনানিতে স্থগিতাদেশ জারি করে কর্ণাটক হাইকোর্ট। ৭ অক্টোবর পর্যন্ত শুনানি স্থগিত করে দেন বিচারপতি। শনিবার হিসাব বর্হিভুত সম্পত্তি মামলায় জয়ললিতার চার বছরের জেল হয়। সেই থেকেই বেঙ্গালুরু সেন্ট্রাল জেলেই রয়েছেন তিনি। এদিকে আজ জয়ললিতার জামিনের আবেদনের শুনানি স্থগিত হয়ে যাওয়ায় আদালতের বাইরে বিক্ষোভ-অনশনে বসেছেন আম্মার সমর্থক আইনজীবীরা।

এখন তিনি হাজতবাস করছেন। তাতে কী! আম্মা এফেক্ট কিন্তু তামিলনাড়–তে পুরো ঝড় বইয়ে দিয়েছে। তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বা টলিউড পুরো স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। অভিনয় ছেড়ে আম্মার সমর্থনে নেমে পড়ছেন তামিল সিনেমার নামী দামী তারকা থেকে নবাগত অভিনেতা, পরিচালক, কলাকুশলীরা।  সুরিয়া, শরৎ কুমার, আনন্দ রাজের মত ফিল্মী মেগাস্টাররা তো অনশনে পর্যন্ত শুরু করে দিয়েছেন। দাবি একটাই, আম্মাকে জেল থেকে এক্ষুনি ছাড়তে হবে। সেই সঙ্গে অনশনে বসেছেন তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা, পরিচালকদের একটা বড় অংশ।

এই টলিউড থেকেই রাজনীতিতে এসেছিলেন জয়ললিতা, তাই তামিল তারকরা রাস্তায় নেমেছেন, এটাই সোজা হিসাব। কিন্তু অন্য অনেক কথাও শোনা যাচ্ছে। যেমন আম্মার কৃপায় টলিউডে অনেক টাকা এসেছে। যার অনেকটা ‘পকেটস্থ’ হয়েছে এইসব কলাকুশলীদের।  অবশ্য শুধু টলিউড নয় তামিলনাড়–র বিভিন্ন জায়গায় আম্মার সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন, র‌্যালি করছেন, মৌন মিছিল করছেন।

তবে আপাতত জেলেই থাকতে হচ্ছে তামিলনাড়–র সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতাকে। আজ তাঁর জামিনের আবেদনের শুনানি স্থগিত হয়ে যায়। আগামিকাল কর্নাটক হাইকোটের্র অবকাশকালীন বেঞ্চে আম্মার জামিনের আজির্র শুনানি হতে পারে। গত শনিবার থেকে জেলেই রয়েছেন তিনি।

আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্মতি মামলায় জয়ললিতার চার বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে বেঙ্গালুরুর বিশেষ আদালত। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চতর আদালতে আবেদন জানিয়েছেন জয়ললিতা। তাঁর হয়ে মামলা লড়ছেন রাম জেঠমালানি। এ দিকে, জয়ললিতার শাস্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে তামিলনাড়–তে। কর্নাটক হাইকোটের্র বাইরে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন অওঅউগক সমর্থকরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য