01_ obamaআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামিক স্টেট (আইএস) এর বিরুদ্ধে হামলা পরিকল্পনা চূড়ান্ত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। বিবিসি জানিয়েছে, বুধবার এক ভাষণের মাধ্যমে এই পরিকল্পনা পেশ করবেন বলে শনিবার এনবিসি টেলিভিশনের ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে জানিয়েছেন তিনি। ওয়েলসের নেটো সম্মেলন থেকে ফেরার পরপরই ওবামার এই সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করে এনবিসি টেলিভিশন। আইএস’কে নির্মূলের কোনো কৌশল নির্ধারণ করতে না পারায় সমালোচনার মুখে থাকা ওবামা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র আইএস’র শক্তিকে খর্ব করে দেবে, তাদের দখলকৃত এলাকায় সঙ্কুচিত করে তাদের “পরাজিত করবে”।

ওবামা বলেন, “আমি দেশকে (যুক্তরাষ্ট্র) প্রস্তুত করছি এটি নিশ্চিত করার জন্য যে আমরা আইএসআইএল (আইএস) এর দিক থেকে আসা একটি হুমকির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি। আইএস, যাকে কখনো কখনো আইএসআইএল বা আইএসআইএস’ও বলা হয়, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইরাক ও সিরিয়ার বিশাল অংশ দখল করে নিজেদের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকাগুলোকে “ইসলামি খেলাফত” হিসেবে ঘোষণা করছে। ওবামা আরো বলেন, “বুধবার, আমি একটি ভাষণ দেব আর কিভাবে আমাদের পরিকল্পনা সামনে এগিয়ে যাবে তার বর্ণনা দিব।”তিনি বলেন, তিনি আইএস’র বিরুদ্ধে “হামলা চালাতে যাচ্ছেন”।  তবে যুক্তরাষ্ট্রের স্থল সেনা বিষয়ে কোনে ঘোষণা থাকবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, এটি ইরাক যুদ্ধের সমতুল্য না। এটি গত পাঁচ, ছয়, সাত বছরে আমরা যে ধরনের সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে যুক্ত আছি প্রায় সে ধরনের। আমি চাওয়া হল, আমেরিকান জনগণ হুমকির চরিত্রটি এবং আমরা এটির বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নিচ্ছি তা বুঝতে পারুক এবং আমরা এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবো এই আস্থা অর্জন করুক,  বলেন তিনি।

আইএস’কে মোকাবিলায় কৌশলে যুক্তরাষ্ট্রর একা থাকবে না বরং আন্তর্জাতিক একটি জোটের অন্যতম থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।  তিনি বলেন, আমরা শুধু আইএসআইএল’র অগ্রযাত্রাকেই থামাতে যাচ্ছি না, আমরা পদ্ধতিগতভাবে এর সক্ষমতাকে খর্ব করতে যাচ্ছি। আমরা তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা অঞ্চল সঙ্কুচিত করতে যাচ্ছি এবং পরিশেষ আমরা তাদের পরাজিত করতে যাচ্ছি। আইএস’র বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে সম্মিলিত বাহিনীর অভিযান শিগগিরই শুরু হওয়ার ইঙ্গিত মিললেও অভিযান কবে শেষ হবে সেই বিষয়টি পরিষ্কার নয় বলে জানিয়েছেন বিবিসি’র উত্তর আমেরিকা প্রতিনিধি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য