Arrদিনাজপুর প্রতিনিধি॥ জামায়াত-বিএনপি’র ২৩ জন নেতাকর্মী নাশকতামূলক কর্মকান্ডের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় রোববার আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন চাইলে বিচারক ১৭ জনকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

রোববার দিনাজপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট রেজাউল বারীর আদালতে ঘোড়াঘাট উপজেলার চাঞ্চল্যকর বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে দায়েরকৃত মামলায় জামায়াত-বিএনপি’র পলাতক আসামী ২৩ জন নেতাকর্মী আত্মসমর্পন করেন। জামিনের আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক ৬ জনের আবেদন বয়স বিবেচনা করে মঞ্জুর করলেও অবশিষ্ট ১৭ জনকে দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

আটক ১৭ জন হচ্ছেন ঘোড়াঘাট উপজেলা বিএনপি’র রফিকুল (৩২), তোজাম্মেল (৪৫), আয়নাল (৩৮), স্বপন মিয়া (৩৫), মোকলেস (৩৪), জামায়াতের সারওয়ার (৪৮), মোজাফ্ফর হোসেন (৩৮), আব্দুর রাজ্জাক (৪০), মোজাম্মেল হক (৩২), জাকির হোসেন (৩৬), সুরুজ আলী (৪২), ছাত্রশিবিরের কবিরুল ইসলাম (২৬), ফরিদুল (২৫), মুক্তার হোসেন (২৮), আবুল কাশেম (৩০), হুমায়ুন কবির (২৮), বাবলু মিয়া (২৪)।

উল্লেখ্য, ১০ এপ্রিল ঘোড়াঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি সভাপতি শামীম চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা জামায়াতের আমীর আলমগীর হোসেন আলম উপজেলা পরিষদে বৈঠক করতে এসে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতামূলক কর্মকান্ড সৃষ্টি করেন। এই ঘটনায় এসআই কল্যাণ চক্রবর্তী বাদী হয়ে ১৫২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। গত ২ সেপ্টেম্বর ১৫১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য