ভ্রাম্যমান আদালতেঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলা মাদকের স্বর্গ রাজ্যে পরিনত হয়েছিল। গত কয়েক দিনে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মাদক সেবন ও বিক্রি অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতে ৮জনের জেল জরিমানা করা হয় ও থানায় ৮টি মামলা হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তবিবুর রহমান ও থানা অফিসার ইনচার্জ ফরহাদ ইমরুল কায়েস। গত ২৭ অক্টোবর পুলিশ প্রশাসন কর্তৃক থানা চত্বরে ওপেন হাউস ডে (মতবিনিময়) সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত জনতার বক্তব্যে জানা যায়, ঘোড়াঘাট উপজেলা মাদকের স্বর্গ রাজ্যে পরিনত হয়েছে এবং উপজাতি পাড়াগুলোতে ২২৩টি বাড়ীতে চোলায় মদ তৈরী হয়। উক্ত বক্তব্যের প্রেক্ষিতে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন এক যোগে মাদক নির্মূল অভিযানে নামে এবং প্রতি হাটবাজারে লোক নিয়োগ করেন। যে কোন স্থানে মাদক বিক্রি ও সেবন করতে দেখলে তাকে আটক করে থানায় জানাবে। উক্ত অভিযানে গত কয়েক দিনে ৮জনের জেল জরিমানা ও মাদক বহন করার অভিযোগে থানায় ৮টি মাদক নিয়ন্ত্রণ মামলা রুজু করা হয়। অপর দিকে উপজাতি পাড়াগুলোতে অভিযান চালিয়ে এ পর্যন্ত প্রায় ২২টি মদ তৈরীর কারখানা ও মদ তৈরীর সরঞ্জাম জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিজ্ঞ মহলের অভিমত প্রতিটি ইউনিয়নে মিটিং করে জনগণকে সচেতন করলে এলাকায় মাদক বিক্রি ও সেবন বন্ধ হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য