DIO PIC-1-9-14প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ “শিশু ও নারী উন্নয়নে যোগাযোগ কার্যক্রম (৪র্থ পর্যায়)” শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় দিনাজপুর জেলা তথ্য অফিস কর্তৃক কাহারোল উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গের দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

গণপ্রজাতন্ত্র্রী বাংলাদেশ সরকারের উপসচিব ও উপপরিচালক স্থানীয় সরকার দিনাজপুর মোঃ হামিদুল হক প্রধান অতিথি হিসেবে কর্মশালার শুভ উদ্বোধন করেন। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাহারোল মোহাম্মদ রবিউল ফয়সাল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ মোঃ দিদারুল ইসলাম, উপপরিচালক,  পরিবার পরিকল্পনা, দিনাজপুর ; মোঃ আব্দুল গণি, ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, কাহারোল ও ৩নং মুকুন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম ফারুক। কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিনিয়র তথ্য অফিসার আবুল কালাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন এবং কর্মশালা পরিচালনা করেন মোঃ আবুবকর সিদ্দীক, সহকারী তথ্য অফিসার, জেলা তথ্য অফিস, দিনাজপুর।

কর্মশালায় ‘বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরোধ’ বিষয়ে প্রথম অধিবেশন পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রবিউল ফয়সাল, ‘স্যানিটেশন, পরিবেশ ও জন্মনিবন্ধন’ বিষয়ে দ্বিতীয় অধিবেশন পরিচালনা করেন উপপরিচালক স্থানীয় সরকার মোঃ হামিদুল হক এবং ‘ মা ও শিশু স্বাস্থ্যের পরিচর্যা এবং নিরাপদ মাতৃত্ব’ বিষয়ে তৃতীয় অধিবেশন পরিচালনা করেন ডাঃ মোঃ দিদারুল ইসলাম, উপপরিচালক, পরিবার পরিকল্পনা, দিনাজপুর।

প্রতিটি কর্ম অধিবেশনের পর ঐ ইস্যুতে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে লাল সুতোয় বিয়ে, সুন্দর আগামী ও গ্রামের নাম বকুলপুরসহ বিভিন্ন উদ্বুদ্ধকরণ চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হয়। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য, সাংবাদিক, এনজিও কর্মী, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, সমাজসেবক, স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত নারী প্রতিনিধি, নারী অধিকার কর্মী, শিক্ষক ও ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব সহ বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় ৩০ জন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

কর্মশালা উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথি মোঃ হামিদুল হক বলেন, সমাজ পরিবর্তনের অন্যতম হাতিয়ার আচরনের পরিবর্তন কৌশল। আর কাঙ্খিত আচরনের টেকসই পরিবর্তনের জন্য জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে সরকার গৃহিত বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে তথ্য অফিস আয়োজিত নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা একটি ভাল পদক্ষেপ। সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরোধ, সবার জন্য স্যানিটেশন, স্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও শতভাগ জন্মনিবন্ধন এবং মা ও শিশুর স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও নিরাপদ মাতৃত্বসহ বিভিন্ন ইস্যুতে কাঙ্খিত টার্গেটে পৌছতে হলে তৃণমূল জনগণকে সঠিক তথ্য সরবরাহ করতে হবে এবং সে অনুযায়ী কাজ করার জন্য জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। আর এ কাজটি করার জন্যই নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গের এই ওরিয়েন্টেশন কর্মশালার আয়োজন।

কর্মশালার প্রতিটি বিষয় এখানে উপস্থিত প্রত্যেকের অত্যন্ত পরিচিতি ও জানা বিষয়। তিনি আশা প্রকাশ করেন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের করণীয় সম্পর্কে আরও সচেতন করা ও কর্তব্য সম্পর্কে স্মরণ করে দেওয়ার জন্য এই কর্মশালা নিঃসন্দেহে গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখবে । তিনি কর্মশালা আয়োজনের জন্য জেলা তথ্য অফিস ও সহযোগিতার জন্য উপজেলা প্রশাসন কাহারোলকে ধন্যবাদ জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য