06_Templeআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের বিশ্বখ্যাত বিষ্ণুপাদ মন্দিরের পুরোহিত স্বামি রাঘবাচার্য বিহারের মক্কাগামী হজযাত্রীদের জন্য তার আশ্রমে বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করার ঘোষণা দিয়েছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গয়ার মাদ্রাসা সমিতির প্রধান মওলানা উমার নুরানি মাদ্রাসাগুলিকে পিন্ডদানকারী তীর্থযাত্রীদের জন্য খুলে দেবার ঘোষণা দিয়েছেন।

ভারতের দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, পরস্পরের ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালনে সহযোগিতার ব্যাপারে সম্মতি প্রদানের এই ঘটনা ঘটেছে গয়া প্রশাসনের আহ্বান করা এক বিশেষ সভায়। হজ, পিন্ডদান ও বৌদ্ধ ধর্মীয় জমায়েতকে চিন্তা করে সামাজিক পুলিশি ব্যবস্থা (কমিউনিটি পুলিশিং) ও পাবলিক-পুলিশ সহযোগিতার অংশ হিসেবেই মঙ্গলবার এই সভার আয়োজন করা হয়েছিল।

রাঘবাচার্য জানান, হজযাত্রীদের জন্য শুধু যে রাতে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে তা নয়। আশ্রমের রান্নাঘরও তাদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। আর যারা এই মন্দিরের খাবার খেতে অনিচ্ছুক তাদের জন্য থাকছে শুকনো খাবার ও গ্যাস স্টোভের ব্যবস্থা। গয়া পুলিশের এসএসএসপি নিশান্ত তিওয়ারির পরিকল্পনাপ্রসূত এই সামাজিক পুলিশি ব্যবস্থায় (কমিউনিটি পুলিশিং) বেশ সাড়া পড়েছে তীর্থযাত্রা ও ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখার দায়িত্বে নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবকদের মাঝে।

গয়ার ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন প্রধান ড. শিয় বচন সিং বলেছেন তার সংগঠন পরিচালিত সব ক্লিনিক ও নার্সিং হোমগুলিতে তীর্থযাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সাহায্য দেয়া হবে। আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ পরিষদের স্থানীয় প্রতিনিধি কিরান লামাও এই ধর্মীয়প্রীতি বজায় রাখার ব্যবস্থায় পূর্ণ সমর্থন দেবেন বলে জানিয়েছেন। নিরাপত্তার বিষয়ে এসএসএসপি তিওয়ারি জানান, বিষ্ণুপদ মন্দিরে স্থায়ী পুলিশ পোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। এই পোস্ট থেকে একাধারে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে মন্দিরের ও তীর্থযাত্রীদের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য