DDinajpurকুরবান আলী, দিনাজপুর ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে কুটুক্তির প্রতিবাদে দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সভায় বৃহস্পতিবার দুপুরে দুপক্ষের আইনজীবীদের মাঝে চরম বাদানুবাদের ফলে সভা পন্ড হয়েছে। আওয়ামী পন্থী সভাপতির বিরুদ্ধে দলীয় আইনজীবীদের ক্ষোভ।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সভা সভাপতি আজিজুল ইসলাম জুগলুর সভাপতিত্বে সমিতির হল রুমে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কয়েকজন আইনজীবী সমিতির পিয়ন গোপালকে সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত ছাড়াই ৩০ হাজার টাকা অনুদান দেয়ার প্রতিবাদ করার পর জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্য মিনহাজুল ফারুক ও ফিরোজ ইব্রাহীম সেই প্রসঙ্গে বলেন, প্রধানমন্ত্রী যদি জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে সুন্দরবনের ২টি বাঘ উপহার দিতে পারেন তাহলে পিয়ন গোপালকে কেন ৩০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া যাবে না।

এ সময় উক্ত ২ সদস্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিয়ে কুটুক্তি করেন। তাৎক্ষনিকভাবে আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সভাপতি ও পিপি হামিদুল ইসলামসহ ২৫/৩০ জন আইনজীবী দাড়িয়ে তীব্র প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

আওয়ামী ও জাতীয়তাবাদী পন্থী আইনজীবীদের চরম হট্টগোল, বাদানুবাদ ও মারমুখো আচরণের ফলে সভায় চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। চরম উত্তেজনাপূর্ণ পরিবেশে আওয়ামী পন্থী আইনজীবীরা প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কুটুক্তির বিচার দাবী করলে সমিতির সভাপতি আওয়ামী লীগের আজিজুল ইসলাম জুগলু কোন পদক্ষেপ না নিয়ে নিশ্চুপ ছিলেন বলে তার দলীয় সদস্যরা অভিযোগ করেন।

পরিস্থিতি চরম উত্তেজনায় পৌছালে পিপি হামিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন আওয়ামী পন্থী আইনজীবীরা সভাস্থল ত্যাগ করলে সাধারণ সভা ভন্ডুল হয়।

এব্যাপারে পিপি হামিদুল ইসলাম জানান, প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে কুটুক্তি করার পরেও সমিতির সভাপতি কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের জরুরী সভা ডেকে তাঁর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাতীয়তাবাদী ফোরামের নেতা একরামুল আমিন ঘটনার ব্যাপারে কিছু বলতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য