1ফিলিস্তিনের গাজায় সর্বশেষ ইসরায়েলি নৃশংসতায় প্রাণ হারালেন সাতজন। তাদের মধ্যে একই পরিবার ৫ জন। গাজার নুসায়রা শরণার্থী শিবিরের একটি বাড়িতে শনিবার ভোরে বোমা ফেলে ইসরায়েলি জঙ্গিবিমান। নিহত হন ২৮ বছর বয়সী গৃহকর্তা, তার ২৬ বছর বয়সী স্ত্রী এবং তিন ও চার বছর বয়সী দুই পুত্র সন্তান। এছাড়া হামলায় গৃহকর্তার ৪৫ বছর বয়সী খালাও নিহত হন। গতকাল শনিবার সকালে গাজার বিভিন্ন বেসামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। এ সময় গাজার বিভিন্ন স্থানে ২০টি টার্গেটে হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। এসব হামলায় প্রাণ হারান মোট সাতজন। এছাড়া গাজা থেকে ছোড়া তিনটি রকেট আঘাত হানে দক্ষিণ ইসরায়েলে। গত মঙ্গলবার ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে মিশরীয় মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতির আলোচনা ভেঙে যাওয়ার পর এ পর্যন্ত গাজায় ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৮১ ফিলিস্তিনি। এদিকে ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে এবং মাহমুদ আব্বাসের নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখানোর সময় পশ্চিমতীরের হেবরন শহরে নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে ফিলিস্তিনিরা। বিক্ষোভকারীরা ইসরায়েলি আগ্রাসন ও আব্বাসের নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়। ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর সঙ্গে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের আতাঁতের অভিযোগ করেন তারা। একই ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে পশ্চিম তীরের বেথেলহেম ও রামাল্লাহ শহরে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত ৮ জুলাই থেকে শুরু হওয়া গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসনে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ২ হাজার ৯২ জন ফিলিস্তিনি। জাতিসংঘ জানিয়েছে নিহতদের মধ্যে শিশু ৪৭৮ জন, তাদের মধ্যে ৩২০ জনের বয়স ১২ বছরের নিচে। অপরদিকে ইসরায়েলি পক্ষে নিহত হয়েছে ৬৮ জন। তাদের মধ্যে ৬৪ জনই সামরিক বাহিনীর সদস্য।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য