15_mandelaনেলসন ম্যান্ডেলাবর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের নেতা ও দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট নেলসন ম্যান্ডেলার মেয়ে বলে দাবি করেছেন দুই নারী।ম্যান্ডেলার উইলের তত্ত্বাবধানকারী আইনজীবী মাইকেল কােজর কাছে এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি এসেছে। গতকাল সোমবার কাৎজ জানান, চিঠিতে ওই দুই নারী নিজেদের ম্যান্ডেলার সন্তান হিসেবে দাবি করলেও তাঁরা কোনো অর্থ দাবি করেননি। আজ মঙ্গলবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়। মাইকেল কাৎজ বলেন, অ্যাটর্নির কাছ থেকে ওই দুই নারীর দাবিবিষয়ক তিনি একটি চিঠি পেয়েছেন এবং অ্যাটর্নি এ বিষয়ে তাঁর সঙ্গে আলোচনা করতে চান বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। চিঠিতে ওই দুই নারী নিজেদের মাদিবার বংশধর বলে দাবি করেন। একই সঙ্গে তাঁরা কোনো অর্থ চান না বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন।
দুই নারীর একজন অনিকা মোথোয়া দক্ষিণ আফ্রিকার সংবাদপত্র দ্য স্টারকে বলেন, ডিএনএ টেস্ট করলেই তাঁর দাবির প্রমাণ পাওয়া যাবে।
দ্য স্টারকে মোথোয়া বলেন, ‘আমি যেহেতু ম্যান্ডেলার পরিবারের উত্তরাধিকারের দাবি চাই, তাই ওই পরিবার হয়তো আমাকে সুবিধাবাদি বলে মনে করতে পারে। কিন্তু এটি সত্যি নয়। আমি শুধু চাই তাঁরা স্বীকার করুন ম্যান্ডেলা আমার বাবা। কোটি কোটি টাকা কোনো ব্যক্তির পরিচয় কিনতে পারে না। এটি আমার সন্তানদের জন্য, নাতি-নাতনিদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তারা কে, সেটা তারা জানতে চায়।’ ২০১০ সালে মেইল ও গার্ডিয়ান পত্রিকার প্রতিবেদনে জানানো হয়, মোফো পুলে নামের একজন নারী ১৯৯৮ সালের পর থেকে ম্যান্ডেলার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছিলেন। তাঁর দাদি জানিয়েছিলেন ম্যান্ডেলা তাঁর বাবা। কিন্তু পুলের চেষ্টা সফল হয়নি। ২০০৯ সালে স্ট্রোক করে মারা যান তিনি।

নেলসন ফাউন্ডেশন জানায়, ম্যান্ডেলার ছয় সন্তান। এর মধ্যে তিনজন মারা গেছেন। কিন্তু সেখানে মোথোয়া ও পুলের নাম নেই। আর তাঁদের জন্মতারিখ ম্যান্ডেলা ও ইভলিন মেজের বিবাহ জীবনের সময়কার। ১৯৫৮ সালে এই দম্পতির বিচ্ছেদ ঘটে। ২০০৪ সালে মেজে মারা যান। এই দম্পতির চার সন্তান ছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য