আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকা ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ৩ জনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে দ্বিতীয় বারের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। রংপুর থেকে আসা ডুবুরি ও স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের একটি দল এ উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এর আগে নৌকা ডুবির ঘটনার পর থেকে সোমবার রাত পৌনে ৯ টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। কিন্তু নিখোঁজদের কোন সন্ধান না পাওয়ায় রাতে উদ্ধার কাজ শেষ হয়।  উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়া ডুুবুরি শফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল থেকে ব্রহ্মপুত্র নদের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাচ্ছেন। কিন্তু তীব্র স্রোতের কারণে মৃতদেহের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। উপজেলার কামারজানি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুন্নবী ছকমল উদ্ধার অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিখোঁজ ৩ জনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চলছে। কামারজানি হাটের গোড়াউন এলাকা থেকে ফুলছড়ি উপজেলা পর্যন্ত দীর্ঘ ২৫ কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত ডুবারু ও ফায়ার সার্ভিস কর্মী উদ্ধার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। শফিকুল ইসলাম জানান, নিখোঁজরা হচ্ছেন গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের মালিবাড়ি সরকারপাড়া গ্রামের জুয়েল মিয়ার স্ত্রী তাসলিমা বেগম (২৮), কামারজানি ইউনিয়নের নুনগোলা গ্রামের আইতুল্যা মিয়া (৩৮) ও একই গ্রামের সোহরাব হোসেন (৪৮)। গাইবান্ধা সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাফিজুর রহমান জানান, নিখোঁজদের উদ্ধারে সর্বাত্বক চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তবে দুপুর ২টা পর্যন্ত কোন মৃতদেহের সন্ধান পাওয়া যায়নি।  প্রসঙ্গত সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে শ্যালো ইঞ্জিন চালিত নৌকা গোড়াইন এলাকায় পৌছিলে ব্রহ্মপুত্র নদের তীব্র সোতে নৌকাটি ডুবে যায়। এতে নৌকার মালামালসহ ১০ জন যাত্রী ডুবে যান। পরে স্থানীয় ও প্রশাসন এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সহায়তায় ৭ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য