আদিবাসী নিহতশাহ্ আলম শাহী,দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরের্র নবাবগঞ্জ উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের  প্রতিপক্ষের লাঠি ও রডের আঘাতে ঘুটু সরেন (৫৫) নামে এক আদিবাসী নিহত হয়েছে।। নিহত ঘুটু সরেন নবাবগঞ্জ উপজেলার কচুয়া গ্রামের মৃত ফাগু সরেনের ছেলে।

ঘুটু সরেন  শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় পারিবারিক কাজে হিলির ডাঙ্গা বাজারে যায়।  পূর্বে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষরা একত্রিত হয়ে ঘুটু সরেনকে একা পেয়ে তাকে রাস্তা থেকে জোর করে গোফ্ফার ডাক্তারের বাড়ীর ভিতর টেনে হেছরে নিয়ে যায়।

সেখানে তাকে দেশীয় অস্ত্র লাঠি  লোহার রড দিয়ে বোদম মারপিট করে। এসময় ঘুটু সরেনের আত্মচিৎকারে হিলির ডাঙ্গা বাজারের লোকজন ছুটে গিয়ে  প্রতিপক্ষের হাত থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঘুটু সরেনকে উদ্ধার করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্যা কমপ্লেক্স চিকিৎসার জন্য ভর্তি করায়।

সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে  তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। নিহত ঘুটু সরেনের পরিবারের সদস্যরা জানায় জমিজমার বিরোধের জেরে একই প্রতিপক্ষের হাতে গত ১৯৭৩ সালে ঘুটু সরেনের পিতা ফাগু সরেনও নিহত হয়েছেন।

ঘুটু সরেনের পরিবারের সদস্যরা জানায়, কচুয়া মৌজার জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে  হিলির ডাঙ্গা বাজারের  বাসিন্দা আনিসুর রহমানের ছেলে গোফ্ফার ডাক্তার, আজগর আলী, আব্দুল আলীম ও সুজনদের সঙ্গে, ঘুটু সরেনের দির্ঘদিন থেেেকে  বিরোধ চলে আসছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য