বালিয়াডাঙ্গী(ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ধান কাটা শ্রমিকের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়নে ব্যাপক ধান চাষ হয়। রবি শস্য আবাদের উপযোগী জমিগুলোতে আলু সরিষা, পিয়াজ, রসুন, আদা, হলুদ ইত্যাদি আবাদের সময় পেরিয়ে যাওয়ার উপক্রম হলেও ধান কাটা শ্রমিকের অভাবে কৃষকরা ধান কাটতে না পারায় রবি শস্য আবাদের জন্য জমি তৈরী করতে পারছে না। এই সব জমির ধান কাটতে অতিরিক্ত মজুরী দিয়েও শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সগীর হোসেন বলেন যে, মজুরীর সরকারী ভাবে নির্ধারণ করলে সাধারণ মানুষ ভোগান্তির হাত থেকে অনেকটার্ ক্ষা পেত। স্থানীয় কৃষি অফিসের আমজাদ হুসেনের সাথে আলাপ করেজানা যায় এই সব এলাকায় ৫০ হাজার একর জমিতে আমন আবাদ হয়েছে। কার্তিকের শুরু থেকে আগাম জাতের ধান কাটারপাশাপাশি বর্তমানে সকল আমন পাকা শেষ হয়েছে। বর্তমানে প্রতি মজুরে ২-৩ শত টাকা এবং প্রতি বিঘায় ধান হিসেবে ৬-৭ কেজি ধান প্রতিটি মজুরকে দিতে হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য