02 beckenbawarল্যাতিন আমেরিকায় নতুন ইতিহাস রচনা করে আকাশে উড়ছে জার্মানি। ল্যাতিন অঞ্চলে যা কেউ পারেনি জার্মানি তাই করে দেখাল। ফুটবল এমন একটি খেলা যেখানে জিতবে জার্মানি! ব্রাজিল বিশ্বকাপে এই কথাটিকে প্রায় প্রতিষ্ঠিতই করে ফেলল জার্মানরা। ফুটবলে আগামী কয়েক বছর যে, জার্মান আধিপত্য বিরাজ করবে তা বলা বাহুল্য। অথচ এই দলে লিওনেল মেসি বা রোনালদোর মতো কোন মহাতারকা নেই। তারপরও সাফল্য জার্মানদের পায়ের নিচে গড়াগড়ি খায়। কেন? এর যুৎসই উত্তর শুনুন কিংবদন্তি ফ্রাঞ্জ বেকেনবাওয়ার মুখে। ফুটবল দুনিয়ায় তিনিই একমাত্র খেলোয়াড় যিনি অধিনায়ক এবং কোচের ভূমিকায় জার্মানিকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বানানোর বিরল কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। বেকেনবাওয়ারের ভাষ্য, মেসি-রোনালদোর মতো কোন মহাতারকা জার্মান দলে না থাকলেও জার্মানি দলটাই মহাতারকা।’তারা ছিল জার্মানদের সেরা দূত। এই সাফল্য গোটা দলেরই। আমাদের মেসি কিংবা রোনালদো নেই। সত্যিকারের কোন মহাতারকাও নেই। দলটাই ছিল এক ধরনের মহাতারকা।’-বলেছেন বেকেনবাওয়ার। এখন সময় জার্মানির। আগামীতে তারাই যে, ফুটবল শাসন করবে তাও অকপটে জানিয়ে দিয়েছেন বেকেনবাওয়ার।’এই জার্মানিকে হারানো খুবই কঠিন হবে। আমরা যদি ভুল না করি তাহলে বলতে পারি তারা এ বছর অপরাজিতই থাকবে।’ দ্বিতীয় রাউন্ডে আলজেরিয়াকে পর্যদুস্ত করতে অতিরিক্ত সময় অবধি খেলতে হয় জার্মানিকে। ওই ম্যাচের পর সাবেকরা জোয়াকিম লো’কে কথার তীরে বিদ্ধ করেন। এদিন অবশ্য লোকে প্রশংসা বৃষ্টিতে ভেজালেন বেকেনবাওয়ার।’জোয়াকিম লো সবকিছুই ঠিকঠাক করেছেন।’ ধন্যবাদ জানাতে ভুল করেননি মারিও গোটশেকে। এই তরুণের হাত ধরেই যে জার্মানরা পেয়েছে চতুর্থবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য