Arrরতন সিং, দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরে নির্বাচনী সহিংসতা, নাশকতা ও রাষ্ট্রদ্রোহী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার পলাতক আসামী হিসেবে জামায়াত-শিবিরের শীর্ষ কর্মী আব্দুল মান্নানসহ ৭ জনকে আটক করে পুলিশ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার ভোরে ঘোড়াঘাট থানার পুলিশ পরিদর্শক ফরহাদ ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বে একটি অভিযান টিম গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হামিদপুর চিত্তিপাড়া নামকস্থানে অভিযান চালিয়ে জামায়াত-শিবিরের কর্মী একাধিক মামলার পলাতক আসামী আব্দুল মান্নান ও তার সহযোগী ২ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসময় আব্দুল মান্নানের নিকট থেকে একটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। আটক ৩ জন ঘোড়াঘাট পৌর জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা যুব জামায়াতের সভাপতি আব্দুল মান্নান (৩৫), যুব জামায়াত নেতা মুক্তার হোসেন (৩৮), শিবির ক্যাডার বাইজিদ (২২)। এই ৩ জনের মধ্যে আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে, নির্বাচনী সহিংসতা ও পুলিশের উপর আক্রমণ, বিস্ফোরণ ঘটনায় ৫টি মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ৭টি মামলা তদন্তাধীন রয়েছে। ওই ১২টি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সম্প্রতি ঘোড়াঘাট উপজেলার বলগাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন হত্যা মামলার অন্যতম আসামী হিসেবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। বিচারক আগামী ১৭ জুলাই রিমান্ড শুনানির জন্য দিন ধার্য করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

অপরদিকে গতকাল মঙ্গলবার ভোরে চিরিরবন্দর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নির্বাচনী সহিংসতার মামলায় পলাতক আসামী জামায়াতের রোকন শফিকুল ইসলাম (৪২) ও জাফরুল ইসলাম (৩৮) এবং খানসামা থানা পুলিশ রায়হানুল ইসলাম (৩৫) ও আব্দুর রাজ্জাক (৪২)কে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে। এই ৪ জন জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে আদালত থেকে একাধিক মামলার গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে। বিচারক বিকেলে গ্রেফতারকৃত ৪ জনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য