IMG_20140205_123959সৈয়দ শিমুল, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার পর এবার বিরামপুরে উপজেলায় গতকাল সকাল থেকে সারাদিন ধরে প্রধান প্রধান সরকের দুই পাসের দোকান সহ বিভিন্ন হাট বাজার,রাস্তা-ঘাট ও মহা-সড়কে চলন্ত দূর পাল্লার যানবাহনে বাছ- ট্রাক, মোটর সাইকেল থামিয়ে অভিনব কায়দায় হাতি দিয়ে চাঁদা বাজি করতে দেখা গেছে। টাকা না দিলে হাতি সরসেনা কেউবা হয়রানীর ভয়ে বাধ্য হয়ে দিচ্ছে চাঁদার টাকা। অভিযোকারীরা জানায়, দিনাজপুরের বিরামপুরে ঐতিহ্যবাহী কাটলা বিজুল আলতাদিঘি মেলার র্সাকাসের হাতি দিয়ে চলছে এ চাঁদাবাজী। কার নির্দেশে চলছে এই চাঁদাবাজি তা জানেনা এলাকাবাশি।  টাকা না দিলে আটকিয়ে রাখা হচ্ছে যানবাহন। দোকান  প্রতিষ্ঠানের মালিকরা মোনে করসেন টাকা না দিলে হাতি দোকানের মালামাল নষ্ট করতে পারে তাই হাতি কিছু করার আগে ১০ টাকা থেকে ২০ টাকা দিয়ে বিদাই  করসে। টাকা পেলে শুড় দিয়ে সালাম জানিয়ে ফিরছে হাতি । ১০ টাকার কম দিলে সেখান থেকে সরছে না আর হাতি! প্রতিদিন ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা তুলছে কবে এ চাঁদাবাজি শেষ হবে তা নিয়ে দুঃচিন্তায় পড়েছে এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগিরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য