05. Israeli  attaceফিলিস্তিনের গাজা ভূখন্ডে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্ততপক্ষে ২৩ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ।
অপরদিকে প্রতিশোধমূলক পাল্টা হামলায় ইসরায়েলের অনেক ভিতরে রকেট হামলা চালিয়েছে গাজার ইসলামপন্থী যোদ্ধারা। গতকাল বুধবার এসব হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে।
গাজার ইসলামপন্থী যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে ইসরায়েল দীর্ঘমেয়াদি অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওই অভিযানের প্রাথমিক পর্যায়ে এই বিমান হামলা চালানো হচ্ছে।
মঙ্গলবার রাতে ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিব ও জেরুজালেমে আকাশ হামলার সাইরেন শুনে লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে ছোটাছুটি শুরু করে।
ফিলিস্তিনি কট্টরপন্থী রাজনৈতিক দল হামাস জানিয়েছে, তারা ইসরায়েলের উত্তরাঞ্চলীয় শহর হাইফায় রকেট নিক্ষেপ করেছে। হাইফা গাজা থেকে ১৪০ কিলোমিটার উত্তরে। ইসরায়েল জানিয়েছে, রকেটটি হাইফায় না, হাদেরায় পড়েছে। হাদেরা গাজা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে। এর আগে গাজা থেকে ছোঁড়া কোনো রকেট ইসরায়েলের অভ্যন্তরে এই পরিমাণ দূরত্ব অতিক্রম করেনি। তবে ওই রকেট হামলায় কেউ হতাহত হয়নি বলে জানিয়েছে ইসরায়েল। গাজা থেকে এই রকেট হামলার জবাবে ভূখন্ডটিতে স্থল অভিযান শুরু করতে পারে ইসরায়েল, যার ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।
অপরদিকে, ঘনবসতি পূর্ণ গাজা ভূখন্ড দিনরাত ইসরায়েলি বোমার আঘাতে প্রকম্পিত হচ্ছে। ভূখন্ডটির আকাশ রেখায় একের পর এক ঘন ধোঁয়ার কুন্ডুলি উঠতে দেখা যাচ্ছে।
ইসরায়েলের এই ধারাবাহিক বিমান হামলায় পাঁচ শিশুসহ ১৭ জন বেসামরিক নিহত হয়েছেন। নিহত মোট ২৩ জনের মধ্যে বাকি ছয়জন হামাসের যোদ্ধা।
ইসরায়েলে চালানো হামাসের অন্যান্য রকেট হামলায় অন্ততপক্ষে দুইজন আহত হয়েছেন বলে দেশটির মেডিকেল সূত্র নিশ্চিত করেছে।
এদিকে বুধবার ভোরে গাজায় ইসলামিক জিহাদ জঙ্গিগোষ্ঠীর জ্যেষ্ঠ নেতা হাফেজ আহমেদকে হত্যা করেছে ইসরায়েল। প্রতিবেশী ও হাসপাতাল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলার সময় ওই জ্যেষ্ঠ নেতার পরিবারের পাঁচ সদস্যও নিহত হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য