05.02.14 ALU 2মোঃ মীর কাসেম লালুঃঃ বীরগঞ্জে গত বুধবার কৃষকেরা আলূর দাম না পেয়ে মহাসড়কে শত শত বস্তা আলু ঢেলে প্রতিবাদ জানায় এবং ক্ষতিগ্রস্ত আলু চাষীদের ক্ষতিপুরনের দাবীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রীর কাছে স্বারক লিপি দিয়েছে। পুরো উপজেলায় এবার বাম্পার আলুর ফলন হওয়ায় কৃষকের আশাও ছিল আকাশ চুম্বি। কিন্ত বিধাতার খেলা বুঝা দায়। অনেক আশা ভালবাসার আলু এখন কৃষকের গলার ফাসে পরিনত হয়েছে, তারই প্রমান দিলেন তারা মহাসড়কে আলু বিছিয়ে তার উপর শুয়ে থেকে। তাদের বক্তব্য ’’হয় আলুর নায্যমূল্য দাও, না হয় আলু এবং আমাদের উপর দিয়ে গাড়ী চালিয়ে দাও’’। হাজার হাজার আলু চাষী আলুর নায্যমূল্য না পেয়ে সর্বশান্ত হয়ে শত শত আলুর বস্তা নিয়ে পৌর সভার সহিদ মিনার মোড়ে জড়ো হয় এবং প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

05.02.14 ALU 3প্রতিবাদ সভাচলা কালে কৃষকগণ তাদের বস্তায় করে আনা আলু  মহাসড়কে ঢেলে দেয় । যার কারনে ঢাকা-পঞ্চগড়  মহাসড়ক ১১টা থেকে ১২টা পযন্ত অবরোদ হয়ে থাকে এবং সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ থাকে। আলু চাষী সংগ্রাম পরিষদের সদস্য মন্জুরুল ইসলাম বলেন আমরা সরকারের কাছে আবেদন জানাই ক্ষতিগ্রস্ত আলু চাষীদের বাচাঁনোর জন্য সরকার  যদি দ্রুত কোন পদক্ষেপ না নেয়, তাহলে অনেক কৃষকের পরবর্তি আবাদের জন্য জমি বিক্রি অথবা বন্দক দিতে হবে। দেবীপুরের ইউপি সদস্য আলিমদ্দিন জানান আমি ১১একর আলু চাষ করে টাকা পেয়েছি মাত্র ৫০হাজার, তিনি জানান আমার দুই থেকে আড়াই লাখ টাকার তার বিজ লেগেছে। সম্ভুগায়ের চাষী ইউছুপ আলী কান্নাভেজা কন্ঠে বলেন এই যে গাড়ীর চাপে আলু  থেকে রস বের হচ্ছে এই রস হচ্ছে আমাদের গায়ের ঘাম ও রক্ত। সাদুল্লাপাড়া গ্রামের আব্দুস সালাম সরকারের প্রতি আকুল আবেদন জানিয়ে বলেন সরকার সহজ সর্তে কৃষি লোন এবং বিনা খরচে হিমাগারে আলু রাখার  ব্যবস্থা না করলে আমাদের বাচার উপায় নেই । মাহানপুরের কৃষক মোঃ খায়রুল ইসলাম বলেন আমরা কৃষকরা হাড়ভাংগা পরিশ্রম করে শষ্য উৎপাদন করে সরকারকে এবং গোটা দেশের মানুষের খাদ্য সরবরাহ করে,দেশবাসিকে বাচিয়ে রেখেছি কিন্ত কোন সরকারই কৃষক বান্ধব কোন বিল সংসদে পাশ করে আমাদের বাচিঁয়ে রাখার ব্যবস্থা করেনি। সরকারের প্রতি আমাদের আকুল আবেদন দেশকে বাচাঁতে চাইলে আগে কৃষক বাচাঁন । সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে গিয়ে শেষ হয় । এবং ক্ষতিগ্রস্ত আলু চাষীদের ক্ষতিপুরনের দাবীতে ইউএনওর মাধ্যমে প্রধান মšী¿র কাছে একটি স্বারক লিপি দেয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু জাফর দ্রুত তাদের আবেদন প্রধান মন্ত্রী বরাবর পৌছাবেন বলে কৃষদের আশ্বাস দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য