বিরলে এক যুবকের লাশ উদ্ধার, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক যুবক আটক

বিরলে এক যুবকের লাশ উদ্ধার, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক যুবক আটক

দিনাজপুর
বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বিরলে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ঐ যুবক উপজেলার ২নং ফরক্কাবাদ ইউপি’র তেঘরা মহেশপুর নাপিত পাড়া গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র শীলের পুত্র শুভ চন্দ্র শীল (২২) বলে জানা গেছে।
সোমবার সকালে উপজেলার কাঞ্চন-পালসাহার রেল ষ্টেশনের নিকটে রাস্তার পাশে ডোবার পানি থেকে পুলিশ ঐ যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে এবং সুরতহাল শেষে দিনাজপুর এম,আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করে।
এ ঘটনায় তপু চন্দ্র শীল নামে এক যুবক কে আটক করে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।
নিহত শুভ চন্দ্র শীলের বড় ভাই লিটন চন্দ্র শীল জানান, বিরল কাঞ্চন মোড়ে আমাদের একটি হেয়ার কাটিং সেলুন আছে। আমরা দুই ভাই ঐ সেলুনে কাজ করি। গতরবিবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৩ টার দিকে আমাদের পাড়ার মহাদেব চন্দ্র শীলের পুত্র তপু চন্দ্র শীল (২২) আমার ভাই শুভ চন্দ্র শীল কে পীরগঞ্জ উপজেলার ভাবীর মোড় নামক স্থানে একটি হোটেলে ভাত খাওয়ার কথা বলে সেলুনের দোকান থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এর পর আমি সন্ধ্যার আগে আমার ভাই শুভ কে ফোন দিলে সে জানায় আমরা কেবল হোটেল থেকে ভাত খেয়ে উঠলাম। এখন রওয়ানা দিব। রাত সাড়ে ৭ টা পর্যন্ত সে না পৌঁছলে আমি আবার ফোন দিলে সে জানায়, রাস্তায় মটর সাইকেল নষ্ট হয়ে গেছে। তাই আমরা পায়ে হেটে আসতেছি।
এরপর রাত ১০ টার দিকে আবার তাকে ফোন দিলে তার ফোনের সুইচ স্টপ পাওয়া যায়। রাত সাড়ে ১১ চার দিকে আমার সাথে দেখা হয় ডেকে নিয়ে যাওয়া যুবক তপুর । সে পাল্টা আমাকেই জিজ্ঞাসা করে শুভ এখনো আসে নাই। সে তো অনেক আগেই এসেছে। এই বলে সে চলে যায়। সারারাত শুভ বাড়ীতে ফিরে নাই। সকালে মানুষের মোবাইল ফোনে সংবাদ পাই যে, শুভ’র লাশ পাওয়া গেছে। এর পর ঘটনাস্থলে এসে আমরা লাশ সনাক্ত করি। এই বলে সে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে সে।
বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ ফখরুল ইসলাম জানান, নিহত যুবক শুভর মাথার পিছনে ও ঘাড়ে রক্তাক্ত জখম ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আমরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তপু নামের এক যুবক কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। সেই সাথে তদন্তও চলছে। দ্রুত ঘটনার আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে আমরা মনে করছি।
এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহত শুভ’র বড় ভাই লিটন চন্দ্র বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।