খানসামায় উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন

খানসামায় উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন

দিনাজপুর

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ১৪৩ টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ১টি শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গণতান্ত্রিক চর্চার লক্ষ্যে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিলের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এ ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রতিটি বিদ্যালয়ের তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হয়েছে সাত জন প্রতিনিধি। এই সাতটি দপ্তর হল স্বাস্থ্য ও সম্পদ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক, বৃক্ষরোপণ, পানি সংকট, পরিবেশ সংরক্ষণ, পুস্তক ও শিখন সামগ্রী এবং অর্ভথ্যনা ও অপ্যায়ন বিভাগ।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করে লিফলেট, পোস্টার, ক্যাম্পেইন সবই হয়েছে। স্কুলে-ঘরে জাতীয় নির্বাচনের আদলে বসানো হয়েছে গোপন বুথ। ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার ছাপানো হয়েছে প্রার্থীদের নামে নামে। নির্ধারিত সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গেটে ভোটাররা দাঁড়িয়েছে লম্বা লাইনে আর এই ভোট গ্রহণে দায়িত্বে প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার। এভাবেই ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে ভোট দিতে দাঁড়িয়েছে ছাত্রছাত্রীরা। তাদের আঙ্গুলে দেয়া হচ্ছে অমচোনীয় কালির ছাপ। সফলভাবে নির্বাচন সম্পন্নে দায়িত্ব পালন করছে শিক্ষার্থীরা এবং তদারকি করছেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

টংগুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী শিশুকাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধাশীল করার পাশাপাশি অন্যের মতামতের প্রতি সহিষ্ণুতা এবং শ্রদ্ধা প্রদর্শন, বিদ্যালয়ে শিখন শিখানো কার্যক্রমে শিক্ষকদের সহায়তা করা, শতভাগ ছাত্র ভর্তি ও ঝরে পড়া রোধে সহযোগিতা করা, শিখন শেখানোর কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে অভিভাবকদের সম্পৃক্ত করা এবং বিদ্যালয়ের পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে ২০১০ সাল থেকে প্রতি বছর এ স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

কুমড়িয়া-১ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহুরুল হক বলেন, এ নির্বাচনের মাধ্যমে কোমলমতি শিশুদের মাঝে গণতান্ত্রিক চেতনা সৃষ্টি হবে। তাদের মাঝে নেতৃত্বের বিকাশ ও পারস্পরিক সহযোগিতার মানসিকতা তৈরি হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এরশাদুল হক বলেন, আনন্দমুখর পরিবেশে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই কার্যক্রমের ফলে শিশুদের মনে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে ভোটার তালিকা প্রকাশ ও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ২৪ মে মনোনয়ন আহ্বান, ২৮ মে মনোনয়ন জমা, ২৯ মে মনোনয়ন বাছাই ও বৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হয়। পরবর্তীতে ৩০ মে ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহার এবং চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ। এই নির্বাচনী কাজে দায়িত্ব পালন করছেন শিক্ষার্থীরা।