বাপ্পী ও দীঘিকে একত্রে

বাপ্পী ও দীঘিকে একত্রে

বিনোদন

‘তুমি আছ তুমি নেই’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী ও দীঘি। প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিষেক বাপ্পীর বিপরীতে, বিষয়টিতে খুশিই ছিলেন দীঘি। দীঘির সঙ্গে ফটোশুটও করা হয়েছিল বাপ্পীর।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাপ্পী ওই ছবিতে অভিনয় করেননি।

ছবিতে চুক্তি বাবদ নেওয়া টাকাও প্রযোজককে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন এ অভিনেতা। পরে সাইমন দীঘির নায়ক হচ্ছেন এমন শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাও হয়নি, দীঘির নায়ক হয়েছিলেন আসিফ ইমরোজ। এই সিনেমা নিয়ে নানা আলোচনা সমালোচনাই হয়েছিল।

ছবির সূত্র জানিয়েছিল শিডিউল জটিলতা ও লুক নিয়ে পরিচালকের সঙ্গে মতপার্থক্যে ছবিটি ছাড়তে হয়েছে বাপ্পীকে। সে পুরনো কথা। এই নিয়ে দীঘি যে অভিমান পুষে রেখেছিলেন তা সিনেমাপাড়ায় বেশ ভালোভাবেই আলোচিত।

সম্প্রতি একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে বাপ্পী ও দীঘিকে একত্রে দেখা গেল। বসেছিলেন পাশাপাশি। আলাপচারিতায় মেতে উঠেছিলেন। খেয়াল করেননি ক্যামেরা। দীর্ঘ সময় কথা বলতে দেখা যায় দীঘি ও বাপ্পীকে। এসময় মাঝে মাঝেই দীঘিকে হেসে উঠতে দেখা যাচ্ছিল, কী কথা বলছিলেন তারা। মাঝে মাঝে দীঘি কান বাড়িয়ে দিচ্ছিলেন। বাপ্পী কানে কানেও বলে যাচ্ছিলেন। একাধিকবার তাদের এভাবেই দেখা যায়।

এ দৃশ্য স্পষ্টই বলে দেয় সম্পর্কের শীতলতা যদি থেকেই থাকে তাহলে অবশ্যই সেটা কেটে গেছে। তবে কি এই দুজনকে ফের একত্রে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হলো? বিষয়টি নিয়ে একেবারে মুখ খুলতে চাননি বাপ্পী। কালের কণ্ঠকে বললেন, ‘আমরা শিল্পী। একত্রে দেখা যেতেই পারে। তবে এমন কোনো আলাপ হয়নি আমাদের। ‘

দীঘি অবশ্য এ বিষয়ে তেমন কিছুই বলতে চাইলেন না। বললেন, ‘এখনো নতুন কোনো সিনেমা করার বিষয়ে আলাপ হয়নি। ‘

অবশ্য দীঘি ব্যস্ত তাঁর মুক্তি পেতে যাওয়া ওয়েব ফিলম ‘শেষ চিঠি’ নিয়ে।