রোদ বৃষ্টির এ সময়ের পার্টি সাজ

রোদ বৃষ্টির এ সময়ের পার্টি সাজ

সাজগোজ টিপস

উফ! অসহ্য গরম। এই বর্ষাতেও এখন এমন কথা শোনা যাচ্ছে। তাই বলে কি আর উৎসব অনুষ্ঠান বন্ধ আছে। ছুটির দিনগুলোয় নানা রকম দাওয়াত তো লেগেই থাকে। তারপর আবার খেয়ালি বৃষ্টি পূর্বাভাস ছাড়াই নেমে পড়ে যখন-তখন। তাই এ সময় মেকআপটা হালকা আর চুলের সাজ হওয়া চাই আরামদায়ক। কেমন হবে এ সময়ের মেকআপ ও চুলের সাজ রূপ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে জানাচ্ছেন কেয়া আমান।

সাজ হবে যেমন-

গরমের সাজ প্রসঙ্গে শোভন সাহা বলেন, এ সময় চুলের সাজে গর্জিয়াস লুক ফুটিয়ে তুললেও সাজের বিষয়ে সতর্ক থাকুন। কারণ সময়টা এখন গরম এবং বৃষ্টিবাদলের। তাই মেকআপ অবশ্যই ওয়াটারপ্রুফ হতে হবে। এখন মেকআপে ন্যাচারাল লুক বা ‘নো মেকআপ লুক’ ট্রেন্ড চলছে। তাই দিনের সাজ হোক বা রাতের, ন্যাচরাল মেকআপ করুন। দিনের হালকা বেইজের সঙ্গে আইশ্যাডো না দিয়ে শুধু আইলাইনার, মাশকারা লাগাতে পারেন। রাতের সাজে বেইজ মেকআপের সঙ্গে শাইনার মিক্স এখন খুব চলছে। সঙ্গে গ্লিটার আইশ্যাডো বা স্মোকি করে সাজাতে পারেন চোখ দুটো। সবশেষে পোশাক মিলিয়ে লাগিয়ে নিন লিপস্টিক।

চঞ্চলমতি বৃষ্টির দিনগুলোয় হয়তো আপনার চুল খোলা রেখে বেড়াতে যেতে ইচ্ছে করছে। কিন্তু বৃষ্টিবাদল আর গরমের কথাটা একবার ভাবুন তো। খোলা চুল এ সময় সামলে রাখা একটু কঠিন বৈকি! তাই নিমন্ত্রণে এ সময় চুল বেঁধে রাখার পরামর্শ দিলেন রূপ বিশেষজ্ঞরা। চুল বাঁধার স্টাইলে এখন চলছে ‘গোছানো তবে একটু অগোছালো’ হেয়ার স্টাইল। ফিউশন হেয়ার স্টাইলও সাজে বৈচিত্র্য আনবে বলে জানালেন শোভন মেকওভার স্কিন স্টুডিওর কর্ণধার ও রূপ বিশেষজ্ঞ শোভন সাহা। তিনি বলেন, খুব বেশি পরিপাটি নয়, একটু লুজ বান হেয়ারস্টাইল এখন ট্রেন্ড। সিম্পল তবে স্টাইলিশ খোঁপা, বেণি এখন ট্রেন্ড। একটা সময় দেখা যেত শুধু শাড়ির সঙ্গেই খোঁপা করা হতো। এখন গাউনসহ বিভিন পোশাকের সঙ্গেও খোঁপা করা হচ্ছে। খোঁপায় আমরা ফিউশন ধাঁচটা ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করেছি। আর এই হেয়ারস্টাইলগুলো গরমে আরামদায়কও।

বেণির বাঁধনে-

এই গরমে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বেণির বাঁধনে হয়ে উঠতে পারেন নজরকাড়া। ফ্রেঞ্চ বেণি, মারমেইড বেণি, টুইস্ট বেণি, খেুঁজর বেণি, ফিশটেইল কিংবা সাধারণ বেণির সঙ্গে একটু ফিউশন করেও বেণিতে আনতে পারেন ভিন্নতা। বিউটি এক্সপার্ট তানজিমা শারমীন মিউনী জানান, বেণিতে খুঁব সহজেই বৈচিত্র্য আনা যায়। আর বৈচিত্র্যময় বেণিগুলো সব পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে যায়। চাইলে বেণিতে ফিউশন করতে পারেন। অর্থাৎ ঝুঁটির সঙ্গে বেণি। ফ্রন্ট কিংবা সাইডে নানাভাবে বেণি করে পেছনে ঝুঁটি করে রাখতে পারেন। আবার সামনে দুপাশ থেকে চুল টুইস্ট করে টেনে পেছনে নিয়ে আটকে বেণি করতে পারেন। আর সামনের টুইস্ট করা অংশে ছোট ছোট কোনো ফুল আটক দিতে পারেন। হেয়ারস্টাইলটি গরমে আরামদায়ক হবে।

খোঁপার ভাঁজে-

বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গর্জিয়াস লুক আনে খোঁপা। রূপ বিশেষজ্ঞ শোভন সাহা জানালেন, ‘কার্ল হেয়ার স্টাইলে করা খোঁপা বেশ স্টাইলিশ লুক আনে। এ ছাড়া নানাভাবে করা টুইস্ট খোঁপা, এলো খোঁপা সব সময়ই ট্রেন্ডি। এই স্টাইলিশ খোঁপা চাইলে গাউনের সঙ্গে ফিউশন করে উপস্থাপন করতে পারেন।’ রিং, টুইস্টসহ বিভিন্ন ধরনের খোঁপার সঙ্গে সামনের চুলগুলো কার্ল করে নিলেও স্টাইলিশ লাগবে। পেছনে হাত খোঁপার সঙ্গে ভিন্নতা আনতে কানের এক পাশ দিয়ে খোঁপার কিছু চুল বের করে দিন। সামনের চুল কার্ল করতে না চাইলে টুইস্ট করে পেছনের চুলগুলো কানের এক পাশে নিয়ে এলোখোঁপা করুন। আরেক পাশে জারবারা কিংবা ডাঁটাসহ অর্কিড আটকে দিন। হেয়ারস্টাইলটি শাড়ির সঙ্গে ভালো লাগবে।

ঝুঁটিতে জমকালো-

শুধু খোঁপা বা বেণি নয়, করতে পারেন স্টাইলিশ ঝুঁটিও। যে কোনো ঝুঁটির সঙ্গে সামনে কিংবা সাইডে কয়েকটি বেণি কিংবা টুইস্ট করে নিলে ঝুঁটি, বেণির কম্বিনেশনে বৈচিত্র্য আসবে। গরমও কম লাগবে।

খোলা চুলেও হালকা বাঁধন-

চুল খোলা রাখতে চান। রাখতেই পারেন। তাই বলে যে স্টাইল করা যাবে না তা কেন! খোলা চুলও চাইলে হালকা বাঁধনে স্টাইলিশ করতে পারেন। কীভাবে? প্রথমেই এক পাশে সামনের দিক থেকে তিনটা চিকন ভাগ করুন। এবার তা ক্লিপ দিয়ে আটকে বাকি চুলগুলো খোলা রাখুন। সামনের দিকে টুইস্ট করেও চুল খোলা রাখতে পারেন। ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে এই স্টাইল ভালো লাগবে।

জেনে নিন আরও কয়েক রকম চুল বাঁধার পদ্ধতি-

খোঁপা ফ্রেঞ্চ রোল-

সামনের চুলগুলো মাথার এক পাশে নিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন। আটকানোর পর চুলগুলো পেছনের দিকে এনে যে পাশে ক্লিপ লাগানো ছিল সেই পাশে ক্লিপের সঙ্গে পেঁচিয়ে কাঁটা দিয়ে আঁটসাঁট করে আটকে দিন। এই বানটি করপোরেট লুকে আদর্শ।

টপ নট রিভ-

সামনের দিকের চুলের কিছু অংশ আলাদা করে সামনের চুল সাইড সিঁথি করে পাফ করে পেছনে ক্লিপ আটকে দিন। এবার একটা পনিটেইল করে বাড়তি চুল রিং করুন, বাকি চুল দিয়ে একটা লম্বা বেণি করুন। রিং করার সময় স্প্রে করে নিন। রিং দিয়ে বেণিটার চারদিকে সুন্দর করে খোঁপা করুন ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে।

ডোনাট বান-

সব চুল এক পাশে করে কানের পাশে আনুন। এবার একগাছি চুল রেখে বাকি চুলটা হাতখোঁপা করুন। এরপর ওই একগাছি চুল দিয়ে হাতখোঁপাটি ঢেকে দিন। শাড়ি পরলে এখন খোঁপার পাশে গুঁজে দিন বর্ষার ছোট্ট কোন বুনোফুল।