জনমত, সরকার পরিবর্তনের কাজ গণমাধ্যমের নয় : রুশ রাষ্ট্রদূত

জনমত, সরকার পরিবর্তনের কাজ গণমাধ্যমের নয় : রুশ রাষ্ট্রদূত

জাতীয়

সন্ত্রাস ও চরমপন্থী মতাদর্শ প্রচার, নাৎসিবাদের বন্দনা ও সরকার পরিবর্তন করা গণমাধ্যমের কাজ নয় বলে মনে করেন বাংলাদেশে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ভি মন্টিটস্কি।

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা দিবস স্মরণে লেখা নিবন্ধে রাষ্ট্রদূত এ অভিমত জানান। ঢাকায় রাশিয়া দূতাবাস ওই নিবন্ধটি গণমাধ্যমগুলোতে পাঠিয়েছে। রুশ রাষ্ট্রদূত লিখেছেন, স্বাধীনতা আরো বড় দায়িত্বের কথা বোঝায়।

গত কয়েক বছরে বিনা মূল্যে তথ্য প্রচারের প্রযুক্তিগুলো অভূতপূর্ব মাত্রায় অগ্রসর হয়েছে। বিশ্বের প্রায় সব দেশেই ইন্টারনেট ব্যবহার একটি সাধারণ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রযুক্তিগত অগ্রগতি গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় ব্যাপক অবদান রেখেছে।
স্বাধীনতার অপব্যবহারের দিকে ইঙ্গিত করে রাষ্ট্রদূত লিখেছেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বাকস্বাধীনতাকে দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ হিসেবে বিবেচনা করা উচিত নয়। ’

আলেকজান্ডার ভি মন্টিটস্কি লিখেছেন, ‘সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ভুয়া খবর তৈরি, জনমত পরিবর্তন বা জনসাধারণের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সুযোগ হওয়া উচিত নয়। গণমাধ্যমে চরমপন্থী মতাদর্শ প্রচারের কোনো স্থান থাকা উচিত নয়। ’

রাষ্ট্রদূত লিখেছেন, তথ্য-প্রযুক্তির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কার্যবিধি প্রণয়নের জন্য রাশিয়া ও সমমনা দেশগুলো অব্যাহতভাবে আহ্বান জানাচ্ছে। এর পরও কিছু দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা শীর্ষস্থানীয় তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর দিকনির্দেশনা অনুসরণ করছে।

রুশ রাষ্ট্রদূত তাঁর নিবন্ধে পশ্চিমা দেশগুলোতে সাংবাদিক নিপীড়নের উদাহরণ তুলে ধরেন। এর পাশাপাশি তিনি ইউক্রেনসহ বিভিন্ন দেশে সাংবাদিকদের নিহত হওয়ার ঘটনাগুলোর তদন্ত দাবি করেছেন।

রাষ্ট্রদূত মন্টিটস্কি লিখেছেন, ‘আমি জোর দিয়ে বলতে চাই, জনসাধারণকে সঠিক এবং ব্যাপক তথ্য প্রদানের জন্য গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের দায়িত্বশীল এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে। সত্যের জয় হবেই। ’