পাভেল হত্যা: ৩ ভাইয়ের দণ্ড

পাভেল হত্যা: ৩ ভাইয়ের দণ্ড

জাতীয়

প্রায় চার বছর আগে রাজধানীর শ্যামপুরে শেখ ইসলাম পাভেল নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে তুহিন নামে আরেক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তুহিনের ছোট ভাই এরফানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ফুফাতো ভাইকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া, মামলার আরেক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (৩০ মে) ঢাকার ৮ম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সৈয়দা হাফছা ঝুমা এ রায় দেন।যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি এরফান ও রাব্বিকে ২০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড অনাদায়ে তাদের আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে। এছাড়া, আমৃত্যু কারাদণ্ড দেওয়া মাসুমকেও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রায় ঘোষণার আগে তুহিনকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। মাসুম পলাতক রয়েছে। অপর দুই আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণা শেষে তিন আসামিকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।মামলা সূত্রে জানা গেছে, মামলার ভিকটিম ও আসামিরা শ্যামপুরের জুরাইন এলাকায় বাস করতেন। তুহিন ভিকটিমের বোনকে প্রায় বিরক্ত করতো।

এ নিয়ে পাভেল ও তুহিনের মধ্যে বিরোধ ছিলো। ২০১৮ সালের ৩ নভেম্বর রাতে এলাকায় ধুমপান করছিল। পাভেল তাকে ধুমপান করতে নিষেধ করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পাভেলকে হত্যার হুমকি দিয়ে তুহিন চলে যায়। পরে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে জুরাইন নতুন রাস্তা খাদ্য ভবনের পাশে পাভেল তার বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করছিল।

এসময় আসামিরা পাভেলের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে। পাভেলকে তার বন্ধুরা হাসপাতালে নিয়ে যান। পরদিন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান পাভেল। এ ঘটনায় ওই দিনই পাভেলের বাবা মনির হোসেন শ্যামপুর থানায় মামলা করেন।মামলাটি তদন্ত করে ২০২০ সালের ২ ডিসেম্বর চারজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন পিবিআই’র সাব-ইন্সপেক্টর মাসুদ খান।