খোলা আকাশের নিচে শীত বৃষ্টিতে ভিজে প্রায় ৯০ লক্ষ টাকার প্রশ্নপত্র বহনকারী ট্রাংক নষ্ট

খোলা আকাশের নিচে শীত বৃষ্টিতে ভিজে প্রায় ৯০ লক্ষ টাকার প্রশ্নপত্র বহনকারী ট্রাংক নষ্ট

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুর কর্তৃপক্ষের অবহেলায় সরকারী তহবিল হতে ক্রয় করা প্রায় কোটি টাকার ট্রাংক নষ্ট।

প্রায় ১ বছর থেকে সরকারী ৪ হাজার পিস ট্রাংক বোর্ড প্রাঙ্গনের মাঠে খোলা আকাশের নিচে রাখার কারনে প্রায় ২ হাজার পিস ট্রাংক নষ্ট হয়ে গেছে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৯০ লক্ষ টাকা।

এসএসসি ও এইচএসসি পরিক্ষার সময় বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় প্রশ্ন নিয়ে যাওয়া হত এই ট্রাংকগুলোতে ।

এদিকে বর্ষাকালের আগেই কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে পানি জমে মরিচা ধরে ট্রাংক নষ্ট হওয়াতে তড়িঘরি করে সরানো হচ্ছে ট্রাংকগুলো। নষ্ট হওয়া ট্রাংকগুলি দিন হাজিরা ভিত্তিক যে সকল কর্মচারীরা খোলা আকাশের নিচ থেকে অনত্র সারিয়ে রাখছেন তারা ধারনা করে বলছেন এখানে প্রায় ৮ হাজার ট্রাংক রয়েছে। যার মধ্যে অর্ধেক ট্রাংক নষ্ট । বোর্ডে থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী একটি ট্রাংক ক্রয় করতে খরচ হয় ৪ হাজার ৫ শত টাকা। সেই হিসেবে ২ হাজার নষ্ট ট্রাংকগুলো দাম প্রায় ৯০ লক্ষ টাকা।

এব্যাপারে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান, প্রফেসর মোঃ কামুরুল ইসলামের কাছে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিন বলেন, আমার চাকুরীতে যোগদানের ৫ মাস হয়েছে। আমি আসার আগ থেকেই ট্রাংকগুলো ওখানেই ছিল। আমি যেগুলো ভালো সেগুলো সরিয়ে রেখেছি, যেগুলো নষ্ট সেগুলো মাঠে আছে। বৃষ্টির আগেই সরানো হয়নি কেনো প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, যেগুলো ভালো সেগুলোতো সরানোই হয়েছে । তবে, ১৫শ পিস ট্রাংক নষ্ট হয়েছে।

শিক্ষাবোর্ডে সচিব প্রফেসর জহির উদ্দিন জানান, বৃষ্টির আগে ট্রাংকগুলোর উপরে টিনসেট দেয়ার কথা থাকলেও সেটা দেয়া হয়নি। তবে ট্রাংকগুলো বৃষ্টির আগে সরিয়ে নেয়া হলে এতগুলো ট্রাংক নষ্ট হতো না। বৃষ্টির আগে সরিয়ে ফেলা উচিত ছিলো।