নদীর গতি প্রবাহ রক্ষা না করলে বাংলাদেশ রক্ষা পাবে না

নদীর গতি প্রবাহ রক্ষা না করলে বাংলাদেশ রক্ষা পাবে না

জাতীয়

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশের নদীপথের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। কারণ নদীর গতি প্রবাহ রক্ষা করতে না পারলে বাংলাদেশ রক্ষা পাবে না। তাই বিশ্বের মধ্যে কেবল এই সরকারই ডেল্টাপ্ল্যান দিয়েছে। এখন তা বাস্তবায়ন করতে হবে।

একই সঙ্গে চাঁদপুরসহ দেশের আরো কয়েকটি স্থানে আধুনিক নৌবন্দর টার্মিনাল নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

নৌ নিরাপত্তা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানে চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমোডর এ জে এম জালালউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, দেশের ১০ হাজার নৌপথ খনন ও সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে গত একদশকে প্রায় ৭ হাজার নৌপথের কাজ শেষ হয়েছে। এই জন্য নতুন পুরাতন মিলিয়ে ৮০টি ড্রেজার মেশিন নদীর নাব্যতা রক্ষায় খনন কাজ করছে।

তিনি বলেন, নৌদুর্ঘটনা এড়াতে প্রশিক্ষিত নাবিক তৈরি করা এবং আধুনিক নৌযান নিমাণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এই জন্য মালিক পক্ষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

নৌপরিবহন অধিদপ্তর আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোস্তফা কামাল, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম মোহম্মদ সাদেক, নৌযান যাত্রী পরিবহন সংস্থার চেয়ারম্যান মাহবুব উদ্দিন বীরবিক্রম, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাসিরউদ্দিন আহম্মদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল, বাংলাদেশ কার্গো ভ্যাসেল অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক, কোস্টাল শিপ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাহফুজ হামিদ, বাল্কহেড মালিক সমিতির সভাপতি আব্দুর রব ভূঁইয়াসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন নৌযান মালিক ও নৌযান শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সমাজের বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।