ফুলবাড়ী পৌর কাউন্সিলের বিরুদ্ধে খেলার মাঠ দখলের অভিযোগ

ফুলবাড়ী পৌর কাউন্সিলের বিরুদ্ধে খেলার মাঠ দখলের অভিযোগ

দিনাজপুর

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে খেলার মাঠ রক্ষার দাবীতে মানব বন্ধন করেছেন পৌর এলাকার সুজাপুর চাঁদপাড়া গ্রামবাসী।

বুধবার বেলা ১১ টা থেকে ১২টা পর্যন্ত উপজেলা পরিষদ চত্তরে একঘন্টা ব্যাপী এই মানব বন্ধন করেন, মানব বন্ধন শেষে খেলার মাঠ রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য গ্রামবাসীদের গণস্বাক্ষর সম্মিলিত একটি আবেদনপত্র উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিনের নিকট জমা দেন।

গ্রামবাসীরা জানায় সুজাপুর মৌজার ১৮১৫ নং দাগে ৫একর ৫৬ শতক জমি একসময় শাখা যমুনা নদি ছিল, দির্ঘ ৩০ বছর পূর্বে শাখা যমুনা নদির গতিপথ পরিবর্তন হলে ১৮১৫ দাগের ৫একর ৫৬শতক জায়গা চর হিসেবে জেগে উঠে, সেই চরটি দির্ঘদিন চাঁদপাড়া গ্রামবাসীরা খেলার মাঠ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে, অপরদিকে একই মাঠে হিন্দু (স্বনাতন) ধর্মালম্বীগণ প্রতিবছর চড়ক মেলা বসিয়ে পুজা-পার্বণ করে আসছে, কিন্তু সম্প্রতিক পৌরসভার ২নং ওয়াড কাউন্সিলর আব্দুল মাজেদ সেই খেলার মাঠটি দখল করে ঘেরাবেড়া দিয়ে ইউকলিপস্টার্সের গাছ লগিয়েছে, এতে দির্ঘদিনের খেলার মাঠটি দখল হয়ে গেছে, এই কারনে তারা খেলার মাঠটি দখলমুক্ত করতে মানব বন্ধন করছেন।

মানব বন্ধনে চাঁদপাড়া গ্রামের শতাধিক নারী-পুরুষ ও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আংশগ্রহন করেন।

এদিকে পৌর কাউন্সিলর আব্দুল মাজেদ ১৮১৫ দাগের খাশ জমিতে ঘেরাবেড়া দেয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, তিনি তাদের পৈত্রিক জমি ১৮১৬ দাগে ঘেরাবেড়া দিয়েছে, তিনি বলেন ১৮১৬ দাগের ২একর ৭৩ একর জমি তাদের পুর্ব পুরুষগণ বিনিময় দলিলসুত্রে মালিক ছিলেন, তার মধ্যে ৬০ শতক জমি অর্পিত তালিকা হওয়ায়, তারা ২একর ১৩ শতক জমির খাজনা পরিশোধসহ চলতি মাঠ জরিপে রেকড করেছেন, সেই জমিতে তিনি ঘেরাবেড়া দিয়েছেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিন বলেন চাঁদপাড়া এলাকায় একই স্থানে নদির খাশ ও অর্পিত জায়গার পাশাপাশি সেখানে মালিকানা জায়গাও রয়েছে, জায়গাটি একবার সার্ভেয়ার দ্বারা হাত নকর্শা করা হয়েছে, প্রয়োজনে আবারো সার্ভেয়ার দ্বারা নতুন করে হাতনকশা করে দেয়া হবে, যাতে কোন প্রকার বিশৃংখলা সৃষ্টি না হয়।