যেমন হবে বৃষ্টির দিনের সাজ-পোশাক

যেমন হবে বৃষ্টির দিনের সাজ-পোশাক

সাজগোজ টিপস

এই সময় টাই যেন এমন। আকাশের ভাব-গতি বোঝা বড় কঠিন। এই রোদ, এই বৃষ্টি। হঠাৎ বৃষ্টির ফলে না চাইলেও অনেককেই ভিজতে হচ্ছে। আবার সেই ভেজা পোশাকেই কাটাতে হয় সারাদিন। এতে ভালো জামা নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে। তাই অনেকেই সাজ পোশাকে নির্বাচনে বিপাকে পড়ে যান।

তাই বৃষ্টির দিনে নিজেকে পরিপাটি রাখার কিছু টিপস জেনে নিন আজ।

পোশাক :

রোদ্র উজ্জল দিনের মতো বৃষ্টির দিনেও চাই আরামদায়ক পোশাক। আর এই সময়টায় রঙের দিকেও নজর দিন। সব সময় উজ্জ্বল রঙের পোশাক পরুন। হলুদ, লাল, কমলা, সবুজ, নীল যেকোনো রং পরতে পারেন।

বৃষ্টির দিনে সুতি শাড়ি, সালওয়ার, এড়িয়ে চলুন। কাদা লেগে পোশাক তো নষ্ট হয়ই, সারাদিন ভিজে থাকায় ঠাণ্ডাও লাগতে পারে। জর্জেট বা সিল্ক এই সময়ের জন্য বেশ ভালো। কারণ, এই কাপড়গুলো দ্রুত শুকিয়ে যায়। তবে খুব পাতলা শাড়ি বা পোশাক এড়িয়ে চলুন।

জুতো :

জুতোর বিষয়ে থাকতে হবে সবেচেয়ে সচেতন। হাই-হিল এড়িয়ে চলুন। পা ঢাকা জুতা পরলে রাস্তার নোংরা পানি লেগে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

সাজ :

বৃষ্টিতে বের হওয়ার সময় হালকা মেকআপই ভালো। তাই প্রথমে মুখ ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। ময়েশ্চারাইজার মেখে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন ত্বকের যেসব জায়গায় কালো ছোপ বা দাগ আছে, সেখানে কনসিলার লাগিয়ে আঙুল দিয়ে মিশিয়ে নিন। লিকুইড ওয়াটারপ্রুফ ফাউন্ডেশন ব্যবহার করবেন। ফাউন্ডেশন লাগানোর পর এক টুকরো বরফ পুরো মুখে হালকাভাবে ঘষে নিন।

মাশকারা এড়িয়ে হালকা আইশ্যাডো দেয়া যেতে পারে। ব্যবহার করতে পারেন হালকা বাদামি, হালকা মোভ, ব্রিক, অরেঞ্জ এবং অবশ্যই ব্রাউনের সব রং। হালকা ফেইস পাউডার, ঠোঁটে লিপিস্টিক আর কপালে ছোট গোল টিপ লাগিয়ে সাজ শেষ করুন। বাইরে যাওয়ার সময় চুল শুকিয়ে খোলা না রেখে বেঁধে রাখুন।

কিছু টিপস :

বাইরে যাওয়ার সময় সাথে সব সময় ছোট পাতলা গামছা বা রুমাল রাখুন।

সাথে রাখুন ওয়াটারপ্রুফ ব্যাগ, রেইনকোট, ছাতা সঙ্গে রাখুন।

যদি সিল্ক জর্জেট পরতে না চান তাহলে ব্যাগে একটা সেট বাড়তি পোশাক রাখুন।

হালকা কিছু মেকআপ কিট সাথে থাকলে অনেক ঝামেলা থেকে বেঁচে যাবেন।

এ সময় খেয়াল রাখুন চুল যেন ভেজা না থাকে। বৃষ্টিতে ভিজে গেলে আগে চুল শুকিয়ে নিন।