দিনাজপুরে ভুমিহীনদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

দিনাজপুরে ভুমিহীনদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ২৪ মে মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মুখ সড়কে কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন (সিডিএ) দিনাজপুর এর আয়োজনে এবং এসোসিয়েশন ফর ল্যান্ড রিফর্ম এন্ড ডেভেলপমেন্ট (এএলআরডি) ঢাকা এর সহযোগিতায় ভুমিহীন মানুষদের নিয়ে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পন ট্রাইব্যুনালের রায় দ্রুত বাস্তবায়নের দাবীতে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মানববন্ধন ও স্মারকলীপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা ভুমি সমন্বয় পরিষদের নির্বাহী সদস্য মোঃ লুৎফর রহমান, জেলা ভুমিহীন সমন্বয় পরিষদের সদস্য কৃষ্ণ কড়া, জেলা ভুমিহীন সমন্বয় পরিষদের শ্রীমতি হেম বালা, সদস্য নিশি কান্ত বর্মন, জেলা ভুমিহীন পরিষদের সদস্য মোছাঃ আনোয়ারা খাতুন, জন সংগঠন ঐক্য পরিষদের সভা প্রধান মোঃ সামিউল ইসলাম, নারী নেত্রী নিয়তি মহন্ত, জেলা ভুমিহীন সমন্বয় পরিষদের সম্পাদক মোঃ জাকারিয়া সিদ্দিক, সিডিএ’র ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক মোঃ আব্দুল জব্বার, সিডিএ’র সংসদীয় এলাকার সমন্বয়কারী মোঃ বেলাল হোসেন, মানব সম্পদ উন্নয়ন কর্মসূচী কর্মকর্তা হাজেরা হাসান, আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মোঃ কামরুজ্জামান।

স্মারবলিপি ও মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ধর্মীয় জাতিগত সংখ্যালঘু ও আদিবাসী জনগোষ্ঠীর ক্ষেত্রে সাম্য, সমতা, সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিতকরণে আপনার আন্তরিক প্রচেষ্টায় ৭২’র সংবিধান পুরোপুরি সাম্প্রদায়ীকতামুক্ত না হলেও ধর্ম নিরপেক্ষতা ও ধর্মীয় স্বাধীনতা পূর্বেকার মত রাষ্ট্রী মৌলনীতি হিসেবে সংবিধানে ফিরে এসেছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি ও পার্বত্য ভুমি বিরোধী নিষ্পত্তিতে কমিশন গঠিত হয়েছে। অর্পিত সম্পত্তি পত্যর্পণ আইন হয়েছে।

হিন্দু বিবাহ নিববন্ধন আইন প্রণীত হয়েছে, চাকুরী-বাকরি নিয়োগ-পদোন্নতি ও জনপ্রতিনিধিত্বশীল সংস্থায় অতীতের বিরাজিত বৈষম্যও বেশ খানিকটা অবসান হয়েছে। আপনি অবগত আছেন সংখ্যালঘু ও আদিবাসীদের বাড়ীঘরে হামলা ও জখম, তাদের জমি-জমা এমনকি দেবোত্তর সম্পত্তিও জবর দখলের অপচেষ্টা, ধর্ম অবমাননার মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে নিরীহ জনগণকে নানাভাবে হয়রানী ও তাদের উপাসনালয়ে হামলার ঘটনা ইতিমধ্যে নানা স্থানে ঘটে চলছে।

আমরা নিশ্চিতভাবে বিশ্বাস করি কুচক্রি মহলের এ ধরনের হীন প্রয়াস আপনার সর্বোচ্চ আন্তরিক সদিচ্ছা ও আইনের পরিপন্থী। এর প্রেক্ষিতে আমরা ঘটনাবলির সাথে জড়িত দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচার এবং ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসনের জন্য ভুক্তভোগীসহ নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে দাবী জানাই। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।