শ্রীলঙ্কায় জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির সর্বোচ্চ রেকর্ড

শ্রীলঙ্কায় জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির সর্বোচ্চ রেকর্ড

আন্তর্জাতিক

নগদ অর্থ সংকটে জর্জরিত শ্রীলঙ্কা মঙ্গলবার রেকর্ড পরিমাণ জ্বালানি মূল্য বৃদ্ধি করেছে। স্বাধীনতার পর থেকে সবচেয়ে ভয়াবহ সংকটে থাকা দেশটির ২২ মিলিয়ন জনগণের জন্য এই মূল্য বৃদ্ধি আরও কষ্টকর হয়ে উঠবে। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস।

দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপ দেশটি কয়েক মাস ধরে ভয়াবহ অর্থ সংকট এবং সরকার বিরোধী বিক্ষোভের মধ্যে রয়েছে, যা মে মাসের শুরুর দিকে প্রাণঘাতী সহিংসতায় পরিণত হয়। এতে অন্তত ৯ জন প্রাণ হারায়।

নব নিযুক্ত জ্বালানি মন্ত্রী কাঞ্চনা ভিজেসকারা বলেছেন, ‘অর্থনৈতিক যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা’ রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সিলন পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের বিশাল লোকসান ঠেকাতে এই নতুন মূল্য হার অনুমোদন করেছে।

গণপরিবহনে ব্যবহৃত ডিজেলের মূল্য লিটার প্রতি ২৮৯ রুপি (০.৮০ ডলার) থেকে ৪০০ রুপি করা হয়েছে। এতে ডিজেলের মূল্য ৩৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। পেট্রোলের লিটার প্রতি মূল্য বাড়িয়ে ৩৩৮ রুপি থেকে ৪২০ রুপি করা হয়েছে।

গত ছয় মাসে ডিজেলের দাম ২৩০ শতাংশ এবং পেট্রোলের দাম ১৩৭ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। উভয় জ্বালানির সরবরাহ কম, গাড়ি চালকদের জ্বালানির জন্য দীর্ঘ লাইনে থাকতে হয়। কখনো কখনো পুরো দিন অপেক্ষা করতে হয়।

চরম বৈদেশিক মুদ্রা সংকটের কারণে জ্বালানি আমাদানি ব্যহত হওয়ার ব্যাপক জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে। খাদ্য ও ওষুধের পাশাপাশি জনগণ বিদ্যুৎ সংকটের ভোগান্তি এবং উচ্চ মুদ্রাস্ফীতির সংকট মোকাবেলা করছে।

দেশটির সেনসাস অফিস সোমবার বলেছে, পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় গত মাসে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ৩৩.৮ শতাংশ এবং খাদ্যমূল্যের স্ফীতি ৪৫.১ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে।