ফিলিপিন্সে যাত্রীবাহী ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডে ৭ মৃত্যু

ফিলিপিন্সে যাত্রীবাহী ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডে ৭ মৃত্যু

আন্তর্জাতিক

ফিলিপিন্সে একটি হাই-স্পিড ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে ও আরও ৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

সোমবার স্থানীয় সময় ভোরে রাজধানী ম্যানিলা থেকে ৬০ কিলোমিটার পূর্বে কেজন প্রদেশের রিয়াল বন্দরে পৌঁছানো ঠিক আগে ফেরিটিতে আগুন লাগে বলে দেশটির কোস্ট গার্ড জানিয়েছে। ফেরিটিতে ১৩৪ জন আরোহী ছিল।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভোর ৫টায় ফেরিটি পোলিলিও দ্বীপ থেকে রওনা হওয়ার পর ভোর ৬টা ৩০ মিনিটে বিপদ সঙ্কেত পাঠায়।

এক বিবৃতিতে কোস্ট গার্ড জানিয়েছে, যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে ৫ জন নারী ও ২ জন পুরুষ। এ পর্যন্ত ১২০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে আহত ২৩ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

কোস্ট গার্ডের শেয়ার করা ছবিতে দেখা গেছে, লাইফ জ্যাকেট পরা লোকজন সাগরে ভাসছেন ও উদ্ধারের জন্য অপেক্ষা করছেন। একই সময় ওই এলাকায় থাকা একটি কার্গো জাহাজ কয়েকজনকে উদ্ধার করেছে। আগুন ও ঘন ধোঁয়া দ্বিতল ফেরিটিকে গ্রাস করে নিয়েছে।

কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ফিলিপিন্স দেশটি ৭ হাজার ছয়শরও বেশি দ্বীপ নিয়ে গঠিত। দ্বীপগুলোর মধ্যে যোগাযোগের জন্য বিভিন্ন ধরনের জলযান ব্যবহৃত হলেও দেশটির সামুদ্রিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বল। অনেক জলযান পুরনো হয়ে গেলেও সেগুলো এখনও ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহন করে চলছে।

১৯৮৭ সালে ম্যানিলার দক্ষিণে মিনদোরো দ্বীপের উপকূলে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ফেরি দোনা পাজের সঙ্গে একটি তেলবাহী ট্যাংকারের সংঘর্ষে প্রায় পাঁচ হাজার লোকের মৃত্যু হয়েছিল। এটি শান্তিকালীন সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জাহাজ দুর্ঘটনা।