মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবীতে পলাশবাড়ীতে সংবাদ সম্মেলন

মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবীতে পলাশবাড়ীতে সংবাদ সম্মেলন

রংপুর

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস মালিক সমিতি এবং গাইবান্ধা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের যৌথ আয়োজনে মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবীতে পলাশবাড়ীতে এক জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে পলাশবাড়ী প্রেস ক্লাব রোডস্থ মোটর মালিক সমিতি কার্যালয়ে গাইবান্ধা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সভাপতি এনামুল হক মকবুল তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমরা দীর্ঘদিন যাবৎ গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন স্থান হতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-চট্টগ্রাম রোডে সুনামের সহিত যাত্রীবাহী পরিবহন ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি।

হাইওয়ে ও ট্রাফিক পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় সরকার যখন সারাদেশে সড়ক-মহাসড়কে সকল ধরণের চাঁদাবাজি বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছে। ঠিক সেই সময়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার মদনপুর হতে কাচঁপুর পর্যন্ত এলাকায় চিহ্নিত সন্ত্রাসী সেন্টু ও আলমগীর গ্রুপ দীর্ঘদিন হতে উক্ত মহাসড়কে চলাচলরত আমাদের মালিকানাধীন যাত্রীবাহি পরিবহন গুলোর স্টাফ ও শ্রমিকদেরকে চাঁদাদাবী করে মারধর এবং তাদের নিকট থাকা টাকা পয়সা ব্যবহৃত মোবাইল ছিনিয়ে নিচ্ছে।

এসময় তারা মাসিক চাঁদা না দিলে প্রতিনিয়তই এমন ছিনতাই চালিয়ে যাবে বলে শ্রমিকদের হুমকি প্রদান করে। এমতাবস্থায় আমরা নিরুপায় হয়ে উল্লেখিত বিষয়টি সমাধানে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের নিকট একাধিকবার লিখিত আবেদন করেও কোন সুরাহা না পাওয়ায় সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টির যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সড়ক ও সেতু মন্ত্রীর জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ভোট বাবু, গাইবান্ধা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সোবহান সরকার বিচ্চু, সাধারণ সম্পাদক এবং পলাশবাড়ী পৌরসভার মেয়র গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব ছাড়াও সংগঠন দু’টির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ছাড়াও সাধারণ শ্রমিকরা উপস্থিত ছিলেন।