কুড়িগ্রামে প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় প্রেমিকার মামলা দায়ের

রংপুর

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে অন্য নারীকে বিয়ে করায় ধর্ষক প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে প্রেমিকা।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামে। ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই কলেজছাত্রী বিয়ের দাবিতে ধর্ষকের বাড়িতে অবস্থান নিলে জরুরি সেবা ৯৯৯-এর মাধ্যমে পুলিশ জানতে পেরে তাকে উদ্ধার করে। পরে ওই কলেজছাত্রী বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী এলাকার সাইফুর রহমানের ছেলে মামুন সরকারের সাথে স্থানীয় ফুলবাড়ী ডিগ্রি মহাবিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত অবস্থায় পরিচয় ঘটে ওই ছাত্রীর। পরিচয়ের সুযোগ নিয়ে মামুন তাকে প্রেমভালবাসায় জড়িয়ে পড়ে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই কলেজছাত্রীর বোনের বাড়িতে গত ২৫ এপ্রিল জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে গেলে মামুন দ্রুত অন্যত্র বিয়ে করে ফেলে। প্রেমিকের বিয়ের খবর জানতে পেরে ওই কলেজছাত্রী বিয়ের দাবিতে মামুনের বাড়িতে গত শনিবার সকাল থেকে অনশন শুরু করেন। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করতে না পেরে স্থানীয়রা জরুরী সেবা ৯৯৯-তে কল দিলে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ রোববার ভোরে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী বলেন, মামুন আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। আমি এর বিচার চাই। তা না হলে আমি আত্মহত্যা করব।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে গতকাল রোববার ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ফুলবাড়ী থানার যার মামলা নং ০১। তাকে পরীক্ষার জন্য কুড়িগ্রামে পাঠানো হয়েছে।