বেগুনি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট করায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

রংপুর

বেগুনি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করে ফেসবুকে পোস্ট করায় রংপুরে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করা হয়েছে। রোববার রাতে তাজহাট থানায় ওই মামলা দায়ের করেন ২৮নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন।

অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম দেলোয়ার হোসেন (৪২)। তিনি নগরীর উত্তর আশরতপুর ঢাকাইয়াপাড়ার বাসিন্দা ফয়েজ আলী মাস্টারের ছেলে রংপুর সিটি কলেজের তথ্য ও যোগযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের শিক্ষক।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, গত ৮ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও কুমড়ার ছবিসহ পোস্ট করেন দেলোয়ার হোসেন। পোস্টের ক্যাপশনে তিনি লিখেন, এটা দিয়েই আমি গণভবনে বেগুনি বানিয়ে সংসদ ভবনে সাপ্লাই করি। ওই শিক্ষকের এই পোস্টের স্ক্রিনশট ফেসবুকে ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় উঠে।

এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। ব্যাপক সমালোচনার মুখে পরে পরবর্তীতে ওই পোস্টটি ফেসবুক থেকে মুছে দেন শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন।

এ ঘটনায় রোববার রাতে ছাত্রলীগ নেতা ইমরান বাদী হয়ে তাজহাট থানায় শিক্ষক দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন।

এ প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, দেলোয়ার হোসেনের ব্যাঙ্গাত্মক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বর্তমান সরকার, জনগণ, আওয়ামী লীগসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিবারের সম্মানহানি ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আমাদের মাতৃতূল্য নেত্রী। তার বিরুদ্ধে এই কটুক্তি করায় আমি দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্রকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

এ বিষয়ে শিক্ষক দেলোয়ার হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ প্রসঙ্গে তাজহাট থানার ওসি নাজমুল কাদের বলেন, দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি। আমরা জিডি করে রংপুরের সাইবার ট্রাইব্যুনালে তদন্তের জন্য অনুমতি চাইবো। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।