দিনাজপুরের পাবর্তীপুরে জমি দখলের জন্য প্রাননাশ ও দেশত্যাগের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর

সংবাদ সম্মেলনঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সংখ্যালুঘু পরিবারের ১ দশমিক ৪৩ একর জমি দখলের জন্যে ভুমিদ:স্যু ও সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে বুড়ি মাতা দেবীর মন্দির ভাংচুর ও অসহায় নারীর শ্লীতাহানীর ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।

৬ এপ্রিল বুধবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখিত অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করে ন্যায় বিচার প্রাপ্তি এবং জীবনের নিরাপত্তা ও সম্পদ রক্ষার দাবী করলেন পার্বতীপুর উপজেলার হাবিবপুর গ্রামের শ্রী বজয় চন্দ্র রায়ের পুত্র শ্রী গুনধর রায়। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, পার্বতীপুর থানাধীন দেবকুন্ডা মৌজার জে.এল নং ১০৫,খতিয়ান নং সিএস ৫৩‘র মধ্যে ১১৮ দাগের ১ দশমিক ৪৩ একর জমি পূর্ব পুরুষদের সুত্রে আমরা মালিকানা প্রাপ্ত হয়ে ভোগদখল করছি। এই সম্পত্তিটি অবৈধভাবে জোবরদখলের জন্য মন্দির ভাংচুর,মন্দিরের পবিত্রতা নষ্ট,আমার মা জানকি বালার শ্লীতাহানী ঘটিয়েছে তারা।

আমাদের এই সম্পত্তি দখলের অপচেষ্টায় ও চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে একই এলাকার সংঘবদ্ধ ভুমিদ:স্যু ও সন্ত্রাসী চক্র, এরা হচ্ছে দেবকুন্ডা গ্রামের মো: আনারুল ইসলাম,মো: জহুরুল ইসলাম,নুরুল ইসলাম,মো: জামিল উদ্দীন,মোসলেম উদ্দীন এবং ফুলবাড়ি উপজেলার নবগ্রাম গ্রামের আফজাল হোসেন, আশরাফ হোসেন,মোশাররফ হোসেন,সোহরাব হোসেন,মমিনুল ইসলাম নেতৃত্বে আরো অজ্ঞাতরা।

এদের বিরুদ্ধে প্রথমে পাবর্তীপুর থানায় জিডি দায়ের করি, যার নং যথাক্রমে ৫০১ তাং ১০/১১/২১ এবং ৩৭০ তাং ০৮/০২/২২ এবং এর পরে পার্বতীপুর সিআরপিসি আদালতে (মামলা নং ২৫৯পি/২০২১ ) মামলা করলে তারা এধরনের কর্মকান্ড আর করবে না মর্মে সংশ্লীষ্ট আদালতে মুচলেকা প্রদান করে। কিন্তু তারপরেও তারা থেমে নেই ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহের জন্য নানান ধরনের অপকৌশল শুরু করেছে। তারা আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের প্রান বাঁচাতে চাইলে দেশত্যাগের হুমতি দিচ্ছে এবং আমার মামলার স্বাক্ষিদের বিভিন্নভাবে ভয়ভতি দেখাচ্ছে।

আমরা জীবন ও জমি বাঁচাতে এখন অসহায় ভাবে ভয়ে ভয়ে দিনাতিপাত করছি প্রশাসনের কাছে আমরা ন্যায় বিচার প্রাপ্তি ও নিরাপত্তার দাবি জানাচ্ছি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত চিলেন গুনধর রায়ের নির্যাতিত মাতা অসহায় শ্রীমতি জানকি বালা।