কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বাবা হত্যার খুনী ছেলে আটক

রংপুর

কুড়িগ্রামের রাজারহাট থানা পুলিশ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বাবাকে হত্যার অভিযোগে সোমবার রাতে ঘাতক ছেলে আঃ জলিলকে আটক করেছে। মঙ্গলবার(৫এপ্রিল) আটককৃতকে আদালতের মাধমে কুড়িগ্রাম জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ জানান, উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের খিতাবখাঁ গ্রামের পয়ার উদ্দিন(৫৫) কে গত রোববার ইফতারের সময় তার ছেলে আবদুল জলিল (২৮) ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে জখম করে হত্যা করেছে।

এ ঘটনায় রাজারহাট থানায় হত্যা মামলা দায়ের হলে পুলিশ সোমবার রাতে অভিযুক্ত আঃ জলিলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। মঙ্গলবার(৫এপ্রিল) পুলিশ আটককৃতকে আদালতের মাধমে কুড়িগ্রাম জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক আঃ জলিল পারিবারিক ঝামেলায় তার বাবাকে হত্যার ঘটনা স্বীকার করে বলে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাজু সরকার জানিয়েছেন।

এলাকাবাসীরা জানান, ঘটনার দিন রোববার (৩এপ্রিল) সন্ধ্যায় ইফতারের সময় বাবা-ছেলের মধ্যে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে লম্পট ছেলে আঃ জলিল ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মা ও বাবাকে গুরত্বর আহত করে।

প্রতিবেশীরা আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহতদের রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার(৪এপ্রিল) সকাল ১১ টায় পয়ার উদ্দিনের মৃত্যু হয়।

এঘটনায় পয়ার উদ্দিনের স্ত্রী জুলেখা খাতুন ছেলে আঃ জলিলের বিরুদ্ধে রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।