১০ বছরে পা রাখল সমকাল। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর এ দিনটাকে পালন করতে ১৫ দিন আগ থেকেই প্রস্তুত ছিল সমকাল সহৃদ সমাবেশ। প্রচন্ড তাপদাহের পর অনুষ্ঠানের দুদিন আগেই দেখা দেয় আকাশে মেঘের ঘনঘটা আর থেমে থেমে বৃষ্টি। অনুষ্ঠান শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করা যাবে কী না তা নিয়ে উৎকণ্ঠায় ছিল সুহৃদ সমাবেশে। কিন্তু শনিবার ছিল না কোন রোদের তাপ কিংবা বৃষ্টি। শান্তিপূর্ণ অনুকুল আবহাওয়ায় পালন করা হয় সুহৃদ সমাবেশের নানা আয়োজন। বিকাল ৪ টায় শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্ত্বর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহনে শুরু হয় চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা মনের মত আঁক। সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় আলোচনা সভা পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আসতে থাকে আমন্ত্রিত অতিথিরা। রাত ৮ টায় উপজেলা সমকাল সুহৃদ সমাবেশের সভাপতি জ্ঞানাঙ্কুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক সোহরাওয়ার্দী’র সভাপতিত্বে শুরু হয় আলোচনা সভা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহেনুল ইসলাম, পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন মন্ডল, পার্বতীপুর প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও ইয়ংষ্টার ক্লাব সভাপতি মোঃ আমজাদ হোসেন, প্রগতি সংঘের সভাপতি মোঃ আনোয়ারুল হক, সাবেক সভাপতি প্রদীপ দত্ত, ২১ চেতনা পরিষদের আহবায়ক কমরেট মোজাম্মেল হক, শিক্ষক তাজকীর হোসাইন, সুহৃদ সমাবেশের উপদেষ্টা বদরুদ্দোজা বুলু, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সমকাল প্রতিনিধি মোঃ মাহমুদুর রহমান প্রমুখ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে সমকাল সম্পাদক গোলাম সারোয়ার ও সমকালের নানা দিক তুলে ধরে পত্রিকাটির নিরপেক্ষতার প্রশংসা করেন। পরে অতিথিরা চিত্রাংকনের বিভিন্ন বিভাগ থেকে নির্বাচিত বিজয়ী আলো কিন্ডার গার্টেনের সাহিদ আল মামুন, তানভীর রাফি, শেফা ও স্নেহা, স্টার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র আতিক ইন্তেশিয়ার মেনম, জ্ঞানাঙ্কুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র অনিক নন্দি ও আবুল কালাম আজাদ এবং মনিরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র তানজিম তাহসিনের হাতে পুরুষ্কার তুলে দেন। শান্তনা পুরস্কার তুলে দেন সীমান্ত, ফরহাদ হোসেন, ফুয়াদ, বরাত, শাফা ও রিফাত নামের শিশু শিক্ষার্থীকে। এছাড়াও শহরের ইয়ং স্টার গন কেন্দ্র পাঠাগার ও প্রগতি সংঘের পাঠাগার থেকে নির্বাচিত সমকাল ভক্ত তিন পাঠকের হাতে পুরুষ্কার তুলে দেওয়া হয় । এরা হলেন ইয়ংস্টার ক্লাব থেকে অখিল চন্দ্র রায় ও মোবারক হোসেন এবং প্রগতি সংঘের সাবেক সভাপতি প্রদীপ দত্ত। রাত ১০ টা থেকে রাত ১টা পর্যন্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন, রংপুরের মোস্তফা, নীলফামারীর ক্ষুদে শিল্পী কমলী রায়ও সবুজ চন্দ্র, ফুলবাড়ীর শারমীন ও রাকিব , চিরির বন্দরের নাসরিন, পার্বতীপুরের শিল্পী ও আল আমিন। নৃত্য পরিবেশন করেন উত্তরাঞ্চলের জনপ্রিয় জুটি হিরা ও জুলেখা ছাড়াও মেঘা, মিথিলা, শারমিন, বিনা, হাসান, সালেক ও সুলতান অনুষ্ঠান কে মাতিয়ে রাখেন। অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগীতা করেন, সুহৃদ সদস্য খায়রুল ইসলাম, মশিউর, সিরাজুল, আবুজার, গোলাপ, মিঠুন, রোকন, আনোয়ার, আজাদ, সোয়েল সানি, বেলাল, টুকুন প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য