অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করলেন রাজাপাকসে

অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করলেন রাজাপাকসে

খেলা

অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন শ্রীলংকার ভানুকা রাজাপাকসে। পারিবারিক কারন দেখিয়ে গত ৫ জানুয়ারি হঠাৎ করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেন শ্রীলংকার বাঁ-হাতি ব্যাটার ভানুকা রাজাপাকসে। তবে সেই অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নিলেন রাপজাপাকসে।

শ্রীলংকার যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাকসের সাথে বৈঠক এবং জাতীয় নির্বাচকদের সাথে আলোচনার পর অবসরের পদত্যাগপত্র প্রত্যাহারের সিদ্বান্ত জানান রাজাপাকসে। শ্রীলংকা ক্রিকেটের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে আজ এ কথা জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে এসএলসি জানিয়েছে, যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাকসের সাথে বৈঠকের পর জাতীয় দলের নির্বাচকদের সাথে আলোচনা করেন ভানুকা রাজাপাকসে। এরপর শ্রীলংকা ক্রিকেটকে অবগত করে ভানুকা তার অবসরের পত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেন। গত ৩ জানুয়ারি বোর্ডের কাছে অবসরের পত্র পাঠান পাকসে।’

বোর্ডের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, ‘অবসর পত্র প্রত্যাহারের চিঠিতে ভবিষ্যতে শ্রীলংকার হয়ে খেলার প্রতিশ্রুতি দেন রাজাপাকসে।’

ভানুকা রাজাপাকসের অবসরের পর তার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আহবান জানিয়েছিলেন শ্রীলংকার সাবেক খেলোয়াড় লাসিথ মালিঙ্গা।

২০১৯ সালে টি-টোয়েন্টি ও ২০২১ সালে ওয়ানডে অভিষেক হয় রাজাপাকসের। দেশের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫টি ওয়ানডে ও ১৮টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন তিনি। ওয়ানডেতে ৮৯ রান ও টি-টোয়েন্টিতে ৩২০ রান করেন রাজাপাকসে।

সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে শারজাহতে ৪৫ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেছিলেন ৩০ বছর বয়সী রাজাপাকসে।

রাজাপাকসের পর টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন দেশটির আরেক খেলোয়াড় বাঁ-হাতি ব্যাটার দানুশকা গুনাতিলকা।

রাজাপাকসে ও গুনাথিলাকার অবসরের পর নড়েচড়ে বসে এসএলসি। বোর্ড জানায়, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার অন্তত তিন মাস আগে এসএলসিকে জানাতে হবে। এমনকি অবসর নেয়ার ছয় মাস পুর্ন হওয়ার আগে ক্রিকেটাররা বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলার অনাপত্তি পত্র পাবে না।

এছাড়াও, লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগে (এলপিএল) খেলতে হলে ঘরোয়া ক্রিকেটে অন্তত ৮০ শতাংশ ম্যাচ খেলতে হবে অবসর নেয়া ক্রিকেটারদের।