6 Usaপহেলা জুন থেকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সভাপতির দায়িত্ব পালন করবে রাশিয়া। এর আগে দক্ষিণ কোরিয়া নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছে। তবে আগামী পহেলা জুলাই থেকে সভাপতির দায়িত্ব পালন করবে আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডা।
দায়িত্ব নেয়ার আগে জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভিতালি চুরকিন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তার দায়িত্বের মেয়াদকালে অত্যন্ত ব্যস্ত সময় কাটবে। এ সময় আফগানিস্তান বিষয়ক একটি বৈঠক থাকবে। এছাড়া, আফ্রিকার দেশ মালি ও আইভরি কোস্টসহ কয়েকটি দেশ নিয়ে সিরিজ বৈঠক এবং সুদান ও দক্ষিণ সুদানের মধ্যকার সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হবে।
মধ্যপ্রাচ্যের কথিত শান্তি আলোচনা, ইয়েমেন ও লিবিয়া পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র নির্মূল ও সেখানকার মানবিক পরিস্থিতি নিয়েও বৈঠক হবে।
ইউক্রেন ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ কোনো বৈঠকের পরিকল্পনা না থাকলেও তিনি এ ধরনের বৈঠকের সম্ভাবনা নাকচ করেন নি। আগামী ১১ জুন জাতিসংঘ শান্তি রক্ষা মিশন নিয়ে উন্মুক্ত বির্তক হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন। তালেবান ও আল-কায়েদার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে নিরাপত্তা পরিষদ একটি প্রস্তাব তুলবে বলে জানান ভিতালি চুরকিন। গত মাসে ফ্রান্সের আনা একটি প্রস্তাবে চীন ও রাশিয়া একসঙ্গে ভেটো দিয়েছিল।
সিরিয়া ইস্যুতে পশ্চিমা কয়েকটি দেশ নতুন প্রস্তাব এনে তার ওপর ভোটাভুটির আয়োজন করতে পারে। সে ক্ষেত্রে রাশিয়ার ভূমিকা কি হবে তিনি তা স্পষ্ট করেন নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য