বগুড়ার সারিয়াকান্দির চরে মরিচের আবাদ এবার ভালো

বগুড়ার সারিয়াকান্দির চরে মরিচের আবাদ এবার ভালো

রাজশাহী

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে মরিচের আবাদ ভালো হয়েছে। জমিতে চলছে পরিচর্যার কাজ। এখন পর্যন্ত মরিচের আবাদ ভালো রয়েছে বলে কৃষি কর্মকর্তারা আশা প্রকাশ করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বন্যার পর উর্বর চরের পলিমাটিতে ব্যাপকহারে করা হয়েছে মরিচ চাষ। তবে তুলনামূলক পরিশ্রম ও খরচ বেশি হওয়ায় এ বছর মরিচের চাষ কমে দিয়েছেন চরের চাষীরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত বাড় চাষ হয়েছিলো ৩ হাজার ৭’শ ৫০ হেক্টর জমি। সেখানে এবার চাষ হয়েছে ৩ হাজার ৬’শ ২০ হেক্টর জমি।

অর্থাৎ গতবারের চেয়ে এবার ১’শ ৩০ হেক্টর জমিতে মরিচ চাষ কম হয়েছে। বিভিন্ন চরের মধ্যে হাটশেরপুর, চর দলিকা, ফাজিলপুর, সংশরপুর, ধারাবর্ষা, বেনিপুর, জামথল, শিমুলতাইড়, বিরামের পাঁচগাছী, হাটবাড়ী, কর্ণিবাড়ী, চরবাটিয়া ও ময়ূরের চর এলাকায় সবচেয়ে বেশি মরিচের চাষ করা হয়েছে।

হাটশেরপুর চরের মরিচ চাষী আবেদ আলী বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার মরিচের আবাদ ভালো মনে হচ্ছে। গাছগুলোতে আশানুরূপ ভালো ফুল ও ফল ধরা পরেছে। তেমন কোন রোগ বালাইও নেই।

গাছে গাছে ফুল ও ফলের ধরন দেখে খুব ভালো লাগছে আমাদের। উপজেলা কৃষি অফিসার মো: আব্দুল হালিম বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার মরিচ চাষের জন্য আবহাওয়া অনুকূলে।

এখন পর্যন্ত অনাকাঙ্খিত কোন বৃষ্টিপাত বা কোন খারাপ আবহাওয়া না থাকায় গাছগুলো ফুলে-ফলে ভরে উঠতে শুরু করেছে। এরই মধ্যে অনেকেই বাজারে কাঁচা মরিচ বিক্রি করে অর্থনৈতিকভাবে লাভোবান হচ্ছেন।