নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর সরে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলীয় মন্ত্রী

নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর সরে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলীয় মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক

কর্মীর সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে নিপীড়নের অভিযোগে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার শিক্ষামন্ত্রী অ্যালান টজ। এই ঘটনায় তদন্তের স্বার্থে তাকে সাময়িকভাবে দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়ার অনুরোধ করেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। বুধবার এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে এমন তথ্য প্রকাশ করেছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়েছে, র‍্যাশেল মিলার অভিযোগে বলেন ২০১৭ সালে তার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী অ্যালন টজ। ওই সম্পর্ক চলাকালীন অ্যালন তার সঙ্গে খারাপ আচরণ এবং ভয় দেখান বলে অভিযোগ করেন র‍্যাশেল মিলার। যদিও এমন অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য বলে উড়িয়ে দিয়েছেন মন্ত্রী অ্যালন টজ।

এদিকে নিজের মন্ত্রিসভায় এমন ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। তিনি জানিয়েছেন, তদন্তের সময় শিক্ষামন্ত্রী অ্যালন পদ থেকে সরে দাঁড়াতে রাজি হয়েছেন।

তাদের মধ্যে সম্মতিমূলক সম্পর্কের বিষয়টি স্বীকার করেছেন অভিযোগকারী মিলার। তিনি শিক্ষামন্ত্রী অ্যালন টজের সাবেক প্রেস সেক্রেটারি ছিলেন। সম্পর্কের বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বিস্তারিত তুলে ধরেন। বলেন, ‘সম্পর্কের সময় বিষয়টি স্বাভাবিক ছিল না। আমি তার সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এমন অনুভব হচ্ছিল। এছাড়া কর্মক্ষেত্রে আমাকে প্রায় সময় হয়রানির শিকার হতে হয়ছে। আমার আত্মবিশ্বাস পুরোপুরি ভেঙে গেছে। আমি ভাবিনি অন্য কোথাও চাকরি পাবো’।