Covid 101

দিনাজপুরে করোনায় নতুন শনাক্ত ৩

দিনাজপুর

দিনাজপুর সংবাদাতাঃ করোনাভাইরাস সংক্রমনে দিনাজপুর জেলায় নতুন ৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৪৮৪৪ জন আর জেলায় সক্রিয় রোগী ২৯ জন এর মধ্যে সদরে ১৩ জন রয়েছে। শনাক্তের হার ৮.৫৭ শতাংশ। কিন্তু সদরে ১৬টি নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ১ জন করোনা ভাইরাসে শনাক্ত হয়েছে। সদরে সংক্রমনের হার ৬.২৫ শতাংশ। এ যাবত জেলায় মৃতের মোট সংখ্যা ২৯০ জন এর মধ্যে সদরে কোভিড-১৯ এ মৃত্যুর সংখ্যা ১৩৭ জন।

দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ৩৫টি নমুনা পরীক্ষার মধ্যে ৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১ ও পার্বতীপুর উপজেলায় ২ জন করোনা কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছে।

দিনাজপুরে এ যাবত সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৮৪৪ জন এর মধ্যে সদর উপজেলায় সংক্রমনের সংখ্যা ৮১৬২ জন, বিরল ৯৩১, বিরামপুর ৫৯৩, বীরগঞ্জ ৫৫১, বোঁচাগঞ্জ ৬৯১, চিরিরবন্দর ৫৯৪, ফুলবাড়ী ৬৯৩, ঘোড়াঘাট ১১৪, হাকিমপুর ৩০৭, কাহারোল ৩৪৬, খানাসামা ৪০০, নবাবগঞ্জ ৩৩৫ ও পার্বতীপুর ১১২৭ জন ১৩টি উপজেলায়।

গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা কোভিড-১৯ আক্রান্ত ৬ জন রোগী সুস্থ হয়েছে। মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা ১৪৫২৫ জন।

বর্তমানে ২৩ জন হোম আইসোলেশনে এবং জেলায় কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী ও করোনা উপসর্গ সম্বলিত রোগী মোট হাসপাতালে ভর্তি ২৬ জন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘন্টায় দিনাজপুর থেকে প্রেরিত নমুনা সংগ্রহ ৬১টি। গত ২৪ ঘন্টায় এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ আরটি পিসিআর ল্যাব থেকে ৩৫টি নমুনা পরীক্ষায় মধ্যে ৩টি করোনা কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছে এবং অদ্যাবধি ল্যাবটেরিতে প্রেরিত নমুনার সংখ্যা ৮৭৩৮০টি আর অদ্যাবধি মোট নমুনার ফলাফল হয়েছে ৮৩৪১২টি।

২৪ ঘন্টায় কোয়ারেনটাইন এর সংখ্যা ১২ জন আর মোট কোয়ারেন্টাইন গ্রহন করেছে ৬১০৮৯ জন। ২৪ ঘন্টায় কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড়পত্র ১০ জন আর মোট কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড়পত্র ৬১০৫৭ জন। বর্তমানে দিনাজপুরে আক্রান্ত অবস্থায় করোনা পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ২৯ জন এবং শনাক্তের হার ৮.৫৭%

জেলায় গত কয়েকদিনে সংক্রমনের হার উঠানামা করলেও জেলায় বর্তমানে সংক্রমনের হার স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে। সরকারি স্বাস্থ্য বিধিনিষেধ যথাযথভাবে পালন না করলে সংক্রমনের হার দিন দিন বাড়বে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

আর এই দিকে দিনাজপুর জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় অক্সফোর্ড-এস্ট্রাজেনেকা টিকার ১ম ডোজ গ্রহন করেছে ১০ জন, অদ্যাবধি ১ লক্ষ ১৭ হাজার ৯ শত ৭৭ জন টিকা গ্রহন করেছে আর ২য় ডোজ গ্রহন করেছে ২০ জন, এ যাবত ১ লক্ষ ৫ হাজার ১ শত ৩৭ জন টিকা নিয়েছে এবং সিনোফার্ম (ভেরোসেল) টিকার ১ম ডোজ গ্রহন করেছে ৩৫ হাজার ৭ শত ৪২ জন, অদ্যাবধি ১০ লক্ষ ৩৮ হাজার ৪ শত ১৫ জন টিকা গ্রহন করেছে আর ২য় ডোজ গ্রহন করেছে ৫ হাজার ২ শত ৪০ জন, এ যাবত ৫ লক্ষ ৩১ হাজার ৫ শত ৫৬ জন টিকা নিয়েছে এবং গত ২৪ ঘন্টায় কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ফাইজার টিকার ১ম ডোজ গ্রহন করেছে ১৪ শত ২৮ জন, অদ্যাবধি ১৩ হাজার ৫ শত ৪ জন টিকা গ্রহন করেছে।