সৈয়দপুরে স্ত্রী হত্যাচেষ্টা মামলায় আ'লীগ নেতা হিটলার চৌধুরী ভলু জেল হাজতে

সৈয়দপুরে স্ত্রী হত্যাচেষ্টা মামলায় আ’লীগ নেতা জেল হাজতে

রংপুর

মোঃজাকির হোসেন সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরের আলোচিত স্ত্রী হত্যাচেষ্টা মামলায় আ’লীগ নেতা হিটলার চৌধুরী ভলু আটক হয়েছেন। ২৯ নভেম্বর সোমবার নীলফামারী জজ কোটের সৈয়দপুর আমলী আদালতে হাজিরা দিতে গেলে বিজ্ঞ আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, বিগত ২০১৯ সালে শহরের গোলাহাট এলাকায় নিজ বাড়িতে গভীর রাতে হিটলার চৌধুরী ভলুর স্ত্রী সুরভী বেগমের গলা কেটে হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটে। এর প্রেক্ষিতে হিটলার চৌধুরী ভলু নিজে বাদী হয়ে মামলা করেন। কিছুদিন পর এ মামলায় আজাদ ও সাজু নামে হিটলার চৌধুরী ভলুর একান্ত সহযোগীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এসময় তারা জানায়, হিটলার চৌধুরীর নির্দেশেই সুরভী বেগমকে হত্যার জন্য গলায় ছুড়ি চালায়। কিন্তু সুরভীর ছোট মেয়ে ঘটনা দেখে ফেলে এবং চিৎকার করায় আশেপাশের লোকজন ছুটে আসায় পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। গলাকাটা অবস্থায় সুরভী চৌধুরীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দীর্ঘ একমাস চিকিৎসা করা হয়।

তাদের জবানবন্দি অনুযায়ী পরবর্তীতে হিটলার চৌধুরী ভলুকেই প্রধান হুকুমের আসামী করা হয়। তিনি সৈয়দপুর পৌর আওয়ামীলীগের ২ নং ওয়ার্ড সভাপতি হওয়ায় রাজনৈতিক প্রভাবে ঘটনাটি ধামাচাপার চেষ্টা করে এবং আটক ওই দুই যুবককেই দায় স্বীকার করার জন্য নানাভাবে প্রচেষ্টা চালান।

এমনকি বাবা মা সহ পরিবারের অন্যদেরও অর্থের লোভ দেখানোসহ হত্যার হুমকিও দেন। জামিন নিয়ে বীরদর্পে অবস্থান করেন। কিন্ত পুলিশের পক্ষ থেকে চার্জশিট হিটলার চৌধুরী ভলুর বিরুদ্ধে যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত গ্রেফতার এড়ানো সম্ভব হলোনা।

এ ব্যাপারে হিটলার চৌধুরী ভলুর আইনজীবী জুয়েলের সাথে কথা হলে তিনি জানান, মামলার চার্জশিট দেওয়ায় আদালতে আত্যসমর্পণ করেন। কিন্তু আলাদত তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।