নাঈমের মৃত্যু, দ্বিতীয় দিনেও সড়কে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

নাঈমের মৃত্যু, দ্বিতীয় দিনেও সড়কে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

জাতীয়

রাজধানীর গুলিস্তানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় দ্বিতীয় দিনও সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

বৃহস্পতিবার সকালে সাড়ে ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। ৩০০ থেকে ৪০০ শিক্ষার্থী মতিঝিল শাপলা চত্বর থেকে বিক্ষোভ শুরু করেন। তারা বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড নিয়ে রাজউক ভবনের দিকে অগ্রসর হন। সেখান থেকে তারা গুলিস্তানে গিয়ে সমাবেশ শুরু করেন বলে জানা গেছে। বিক্ষোভে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীরাও অংশ নিয়েছেন।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা এ সময় ‘আমার ভাই মরলো কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আমরা বিচার চাই’ ‘নিরাপদ সড়ক চাই’-সহ নানা ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন।

বিক্ষোভকারীরা বলেন, আমাদের সহপাঠী গাড়ি চাপায় মারা গেছেন। ওই ঘটনায় দোষীর বিচারের দাবিতে আমরা গুলিস্তানে সড়কে অবস্থান নেবো। যতক্ষণ না বিচার হবে ততক্ষণ আমরা আমাদের অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাবো।

আন্দোলনে অংশ নেওয়া কবি নজরুল কলেজের শিক্ষার্থী রঞ্জু বলেন, ‘সড়কে বেপোরোয়াভাবে গাড়ি চালোনোর কারণে প্রতিদিন আমাদের কোনো না কোনো শিক্ষার্থী মারা যাচ্ছেন। সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধ হচ্ছে না।’

সোহরাওয়ার্দী কলেজের শিক্ষার্থী আরমান বলেন, ‘নিরাপদ সড়কের পাশাপাশি প্রতিটি ড্রাইভার হেলপারের ডোপ টেষ্টের মাধ্যমে লাইসেন্স দিতে হবে।’

প্রসঙ্গত, বুধবার রাজধানীর গুলিস্তানে রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান (১৮) মারা যান।